শিরোনাম

  নৌকার জয় সুনিশ্চিত : প্রধানমন্ত্রী   আজ ইউপিডিএফ’র ২০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী   এবার থাইল্যান্ডে বৈধ হলো গাঁজা   ইউপিডিএফ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকলকে সংগ্রামী শুভেচ্ছা জানালেন প্রসিত বিকাশ খীসা   চীনা শিশুরা আর স্কুল পালাতে পারবে না!   আবার ক্ষমতায় গেলে ভুল সংশোধন করা হবে : কাদের   প্রধানমন্ত্রী থেকে মাতৃভাষার বই পেয়েছে ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীর শিশুরা   শুভ বড়দিন আজ   রোহিঙ্গাদের জন্য শীতবস্ত্র পাঠাল ভারত   ইন্দোনেশিয়ায় সুনামির আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪০০ অধিক ছাড়িয়েছে   টাকার মালা উপহার পেলেন ফখরুল!   মধ্যরাত থেকে নির্বাচনী মাঠে সেনাবাহিনী   ভোটের দিন ২৪ ঘণ্টা সব যান চলাচল বন্ধ   সেনা মোতায়েনে ভোটারদের মধ্যে আস্থা ফিরে আসবে: সিইসি   পানছড়িতে ইউপিডিএফের নির্বাচনী অফিসে এলোপাতাড়ি ব্রাশ ফায়ারে ২ জন নিহত!   জেএসসি ও পিইসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ   আগামী ৩০ তারিখ আমরা নৌকার বিজয় নিয়ে ঘরে ফিরবো: দীপংকর তালুকদার   ইন্দোনেশিয়ায় সুনামির আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২২২ জন   যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে তাদের ভোট দেবেন নাঃ প্রধানমন্ত্রী   ২৮ ডিসেম্বর থেকে ১ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত ৪ দিন মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / ভুল করে রোহিঙ্গাদের আদিবাসী বলে আইডি কার্ড দিচ্ছে , তদন্তে নেমেছে মিয়ানমার সরকার

ভুল করে রোহিঙ্গাদের আদিবাসী বলে আইডি কার্ড দিচ্ছে , তদন্তে নেমেছে মিয়ানমার সরকার

প্রকাশিত: ২০১৮-১২-২০ ১৪:৩৫:১০

   আপডেট: ২০১৮-১২-২০ ১৮:০৭:২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক >>

মিয়ানমার দক্ষিণ রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গাদের ভুলভাবে জাতিগত কামন হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে জাতীয় কার্ড (এনআরসি) দিয়েছে কর্তব্যরত সেসব কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে শ্রম, ইমিগ্রেশন এবং জনসংখ্যা মন্ত্রণালয় ব্যবস্থা নিবে বলে জারি করেছে।

ইরাবতি জানিয়েছে, ন্যাশনাল প্রগ্রেসিভ পার্টি (কেএনপিপি) এবং কামন সম্প্রদায় গত সেপ্টেম্বরে প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ে অভিযোগ দাখিল করেছিলেন। যেখানে দক্ষিণ রাখাইন রাজ্যে ৩,০০০ বেশী বাসিন্দাদের কামন হিসেবে চিহ্নিত করেছিল সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। আসলে সেই সংখ্যা থেকে কিছু আসল রোহিঙ্গা বলে জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যমটি।

কেন্দ্রীয় শ্রম, অভিবাসন ও জনসংখ্যা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা ইউ থেইন সিউ বুধবার সাংবাদিকদের জানান, যাদেরকে আইডি কার্ড দেওয়া হয়েছে সেখান থেকে কয়েক জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে। আসলে এরা কামন সম্প্রদায়ের জনগোষ্ঠী নয়। কিছু কর্মকর্তা তাদেরকে ভুলক্রমে কামন হিসেবে আইডি কার্ড প্রদান করেছিল। আসলে এরা রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের।

তিনি আরো বলেন, যারা আইডি প্রদানের প্রক্রিয়া চলাকালে ভুলভাবে তাদেরকে অন্তর্ভুক্ত করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এদিকে, আরাকান জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্যরা দাবি করেছেন কিছু রোহিঙ্গা কামন সম্প্রদায় হিসেবে নাগরিকত্ব অর্জনের চেষ্টা করছেন।

যদি তারা কোন মতে কামন হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হতে পারে তাহলে ভবিষ্যতে জাতিগত বিষয়ক মন্ত্রী থেকে স্বায়ত্তশাসন দাবি করতে পারে এমন আশংকা প্রকাশ করা হয়েছে। সে কারণে আসল রোহিঙ্গাদের চিহ্নিত করা হচ্ছে এবং যারা আইডি কার্ড প্রদানকালে কামন হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করেছে সেসব কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন নেবে সরকার।

উল্লেখ্য, কামন হচ্ছে জাতিগত গোষ্ঠী যা মূলত মিয়ানমারের দক্ষিণ রাখাইন রাজ্যে বসবাস করে।কামন নামটি ফার্সি থেকে এসেছে, যার অর্থ "নম"।

কামন আনুষ্ঠানিকভাবে বার্মিজ সরকার কর্তৃক স্বীকৃত এবং রাখাইন জাতি সহ ৭ জাতিগত গোষ্ঠীগুলির মধ্যে একটি হিসাবে শ্রেণীবদ্ধ। তাদেরকে আদিবাসী সম্প্রদায় হিসেবে মনে করা হয়। তারা সবাই বার্মিজ নাগরিক হিসাবে স্বীকৃত।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত