শিরোনাম

  গত ৫ বছরে জেএসএস এমপি উন্নয়ন করতে পারেনি, যা করেছে আওয়ামীলীগ করেছে : দিপংকর তালুকদার   এখন থেকে সরকারি চাকরিতে যোগ দেওয়ার আগে মাদক পরীক্ষা বাধ্যতামূলক   'বান্দরবানে বিদেশি পর্যটকদের ভ্রমণে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই'   'নির্বাচনী প্রচারণায় রঙিন পোস্টার বা ব্যানার ব্যবহার করা যাবে না'   ৫৮টি নিউজ পোর্টাল খুলে দিয়েছে বিটিআরসি   বুধবার থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন প্রধানমন্ত্রী   বিএনপি ক্ষমতায় এলে শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন করার চেষ্ঠা করবো: মনি স্বপন দেওয়ান   তিন পাহাড়ে নৌকা নিয়ে মাঠে দৌড়াবেন যারা   আগামীকাল খালেদা জিয়ার অগ্নিপরীক্ষা   হিরোকে জিরো বানানো এত সহজ নয়, সফল হিরো আলমের চ্যালেঞ্জ   খাগড়াছড়িতে বনের রাজা পেয়েছেন ইউপিডিএফের প্রার্থী নতুন কুমার চাকমা   বিশ্বের প্রথম উঁচু ভাস্কর্য 'চীনের স্প্রিং টেম্পল বুদ্ধ'   আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস || আদিবাসীদের মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় এগিয়ে আসার অাহ্বান   বনের রাজা সিংহকে নিয়ে রাঙ্গামাটিতে দৌড়াবেন ঊষাতন তালুকদার   আজ বিশ্ব মানবাধিকার দিবস   নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের জন্য যেসব মার্কা দেওয়া হচ্ছে...   নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণায় সকল প্রার্থীদের যা যা মেনে চলতে হবে   নির্বাচনে গাড়ি প্রতীক পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমরান এইচ সরকার   দেশে ৫৮টি নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে বিটিআরসি   পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি ফিরিয়ে আনার জন্য শেখ হাসিনাকে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার দেওয়া উচিত
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / খারাপ মন্তব্য করায় বাংলাদেশের সমালোচনার মুখে মিয়ানমারের এই মন্ত্রী

খারাপ মন্তব্য করায় বাংলাদেশের সমালোচনার মুখে মিয়ানমারের এই মন্ত্রী

প্রকাশিত: ২০১৮-১২-০৬ ১০:২৪:৫৬

   আপডেট: ২০১৮-১২-০৬ ১০:২৭:০৩

রয়টার্স >>

মিয়ানমারের বাংলাদেশবিরোধী, রোহিঙ্গাবিরোধী ও ইসলামবিরোধী নীতির তীব্র প্রতিবাদ করেছে বাংলাদেশ। এই বর্ণবৈষম্যমূলক নীতির প্রতিবাদ করার জন্য বুধবার (৫ ডিসেম্বর) মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত লুইন উ কে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়।

সম্প্রতি মিয়ানমারের ধর্মীয় বিষয়ক মন্ত্রী থুরা উ অং কো গত ২৭ নভেম্বর এক শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে ইসলাম ধর্মকে উদ্দেশ করে বলেন, ’চরমপন্থী ধর্ম’ বৌদ্ধদের জন্য একটি বড় ঝুঁকি।

তিনি বলেন, ‘যখন আমরা বৌদ্ধরা একক স্ত্রী চর্চা করি এবং এক বা দুইটি সন্তানের জনক হই, তখন একটি চরমপন্থী ধর্ম তিন বা চারটি স্ত্রী রাখার পক্ষে উৎসাহিত করে এবং তাদের ১৫-২০ টি সন্তান হয়।’তিন, চার বা পাঁচ দশক পরে এই বৌদ্ধ ধর্মাবলাম্বী দেশে বৌদ্ধরা সংখ্যালঘু হয়ে পড়বে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

এরপর গত মঙ্গলবার মিয়ানমারের রাজধানী নেইপিডোতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ওই মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে সাত লাখ রোহিঙ্গা আছে এবং দেশটি রোহিঙ্গাদের ফেরত যেতে বাধা দিচ্ছে এবং বাংলাদেশ এর মাধ্যমে টাকা আয় করছে।

থুরা আরও অভিযোগ করেন, রোহিঙ্গা যুবকদের মাথা নষ্ট করা হচ্ছে এবং তারা মিয়ানমারের উদ্দেশে যে কোনও সময়ে মার্চ করবে।একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে বলেছি তাদের মন্ত্রীর মন্তব্য সম্পূর্ণভাবে অগ্রহণযোগ্য এবং তার বক্তব্য মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করেছে।’ এসময় ওই মন্ত্রীকে এমন মন্তব্য করার জন্য বাংলাদেশের কাছে ক্ষমা চাইতেও বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ ও মিয়ানমার গত ২৩ নভেম্বর বাস্তচ্যুত মিয়ানমার অধিবাসীদের ফেরত পাঠানোর জন্য চুক্তি স্বাক্ষর করেছে এবং এই চুক্তি অনুযায়ী মন্ত্রী তাদেরকে ‘বাঙালি’ বলতে পারে না বলে তিনি জানান।

আমরা রাষ্ট্রদূতকে বলেছি তাদের মন্ত্রীর ইতিহাস, সংস্কৃতি ও ধর্ম বিষয়ে কোনও জ্ঞান নেই।

তিনি বলেন, রাষ্ট্রদূতকে বলা হয়েছে ঐতিহাসিকভাবে বাংলাদেশ মিয়ানমারের থেকে সমৃদ্ধশালী ছিল এবং কখনোই বাঙালিরা সীমান্ত অতিক্রম করে রাখাইনে গিয়ে ঘরবাড়ি তৈরি করেনি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত