শিরোনাম

  গত ৫ বছরে জেএসএস এমপি উন্নয়ন করতে পারেনি, যা করেছে আওয়ামীলীগ করেছে : দিপংকর তালুকদার   এখন থেকে সরকারি চাকরিতে যোগ দেওয়ার আগে মাদক পরীক্ষা বাধ্যতামূলক   'বান্দরবানে বিদেশি পর্যটকদের ভ্রমণে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই'   'নির্বাচনী প্রচারণায় রঙিন পোস্টার বা ব্যানার ব্যবহার করা যাবে না'   ৫৮টি নিউজ পোর্টাল খুলে দিয়েছে বিটিআরসি   বুধবার থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন প্রধানমন্ত্রী   বিএনপি ক্ষমতায় এলে শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন করার চেষ্ঠা করবো: মনি স্বপন দেওয়ান   তিন পাহাড়ে নৌকা নিয়ে মাঠে দৌড়াবেন যারা   আগামীকাল খালেদা জিয়ার অগ্নিপরীক্ষা   হিরোকে জিরো বানানো এত সহজ নয়, সফল হিরো আলমের চ্যালেঞ্জ   খাগড়াছড়িতে বনের রাজা পেয়েছেন ইউপিডিএফের প্রার্থী নতুন কুমার চাকমা   বিশ্বের প্রথম উঁচু ভাস্কর্য 'চীনের স্প্রিং টেম্পল বুদ্ধ'   আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস || আদিবাসীদের মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় এগিয়ে আসার অাহ্বান   বনের রাজা সিংহকে নিয়ে রাঙ্গামাটিতে দৌড়াবেন ঊষাতন তালুকদার   আজ বিশ্ব মানবাধিকার দিবস   নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের জন্য যেসব মার্কা দেওয়া হচ্ছে...   নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণায় সকল প্রার্থীদের যা যা মেনে চলতে হবে   নির্বাচনে গাড়ি প্রতীক পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমরান এইচ সরকার   দেশে ৫৮টি নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে বিটিআরসি   পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি ফিরিয়ে আনার জন্য শেখ হাসিনাকে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার দেওয়া উচিত
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / সরকারের প্রতিশ্রুতিতে অবশেষে শান্ত হয়েছে রোহিঙ্গারা

সরকারের প্রতিশ্রুতিতে অবশেষে শান্ত হয়েছে রোহিঙ্গারা

প্রকাশিত: ২০১৮-১১-২৮ ১২:১৭:৫৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক >>

জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থাকে "রোহিঙ্গা" জনগোষ্ঠিকে আইডি কার্ডসহ অন্তর্ভুক্ত করার দাবিতে কক্সবাজার জেলার উখিয়া অঞ্চলে রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পের নেতারা সোমবার থেকে তিন দিনের ধর্মঘট ডাক দেয়।

দাবি ছিল,

১. রোহিঙ্গা রিফিউজিদের স্মার্ট কার্ড নিতে বাধ্য করা যাবে না।
২. স্মার্ট কার্ড নিতে না চাইলে রোহিঙ্গাদের আটক রাখা যাবে না।
৩. স্মার্ট কার্ডে জাতিগত নাম ‘রোহিঙ্গা’ উল্লেখ করতে হবে। স্মার্ট কার্ডে ‘জোর পূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের নাগরিক উল্লেখ করা যাবে না’।
৪. বায়োডাটা (পারিবারিক তথ্য) সংগ্রহ করা থেকে বিরত থাকতে হবে এবং ইতোমধ্যে যে সব তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে সেগুলো মিয়ানমার সরকারকে প্রদান করা যাবে না।

ইউএনএইচসিআর’ কর্তৃক মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনের জন্য তৈরি করা পরিবারভিত্তিক তালিকায় ‘রোহিঙ্গা’ উল্লেখ না থাকায় তারা অনশনে চলে যায়।

এক বিবৃতিতে রোহিঙ্গারা জানায়, মিয়ানমারে তাদের জাতিগতভাবে স্বীকৃতি না থাকায় তারা অত্যাচারে শিকার হচ্ছেন।মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনের জন্য করা পরিবারভিত্তিক তালিকায় “রোহিঙ্গা” শব্দটি উল্লেখ না থাকায় আমরা বিচলিত হয়ে পড়েছি।’

মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের এখনো রোহিঙ্গা সংখ্যালঘু বলে স্বীকৃতি দেয়নি। নিকট-অতীত থেকে রোহিঙ্গাদের 'বাঙালি' বলে আখ্যায়িত করে আসছে।জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইতিমধ্যে রোহিঙ্গাদের যাবতীয় তথ্য নিচ্ছেন। যারমধ্যে রয়েছে- (ফিঙ্গার প্রিন্ট, আইরিস স্ক্যান,রোহিঙ্গাদের সঠিক নথিপত্র)।

বিবৃতিতে তারা আরো জানায়, আমরা বিশ্বাস করি (ইউএনএইচসিআর) মায়ানমার সরকারের সাথে প্রত্যর্পণের জন্য আমাদের দাবিগুলো মেনে নেবে। তা না হলে আমাদের বাঙালি বা আরসা সদস্য বলে চিহ্নিত করবে।যা আমাদের সমস্যা হতে পারে।

এদিকে, তাদের ডাক দেওয়া ধর্মঘট তুলে নিয়েছে বলে জানিয়েছে মিয়ানমার বহুল প্রচারিত সংবাদ মাধ্যম ইরাবতি।বাংলাদেশ সরকার জাতিসংঘের প্রতিনিধিদের সাথে কথা বলবে যাতে আইডি কার্ডে 'রোহিঙ্গা ' বলে উল্লেখ থাকে। এ কারণে তিন দিনের ধর্মঘট আপতত বন্ধ রয়েছে।

সর্বশেষ বিবৃতিতে রোহিঙ্গারা জানিয়েছে, ধর্মঘট স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি কারণ আমাদের দাবিগুলো নিয়ে আলোচনা করার জন্য ইতিমধ্যে সরকার নড়েচড়ে বসেছে ও মেনে নিয়েছে।

জানা গেছে, এ পর্যন্ত প্রায় ২৯০০০ বেশী রোহিঙ্গা আইডি কার্ডের জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছে।

উল্লেখ্য, (আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি) হচ্ছে মিয়ানমারে একটি জঙ্গি সশস্ত্র দল। ২০১৭ সালে আগস্ট মাসে নিরাপত্তা বাহিনীর চেকপোস্টে হামলা চালায়। এতে পুলিশ মারা যায়। রোহিঙ্গা জঙ্গিদের হামলার পর সন্ত্রাসীদের দমন করার নামে রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় সামরিক অভিযান শুরু করেছিল মিয়ানমার। এর পর লক্ষ লক্ষ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসে।

সূত্রঃ ইরাবতি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত