শিরোনাম

  প্রযুক্তি ফাঁদে পড়েছেন রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক   সেনাক্যাম্প কমান্ডার কর্তৃক জনপ্রতিনিধিদের উপর হয়রানি ও নির্যাতনের ঘটনায় জেএসএসের প্রতিবাদ   বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী   রোনালদোর গোলে এগিয়ে গেল পর্তুগাল   ইন্দোনেশিয়ায় ফেরি ডুবিতে নিখোঁজ ১৯২   চালু হলো বাইসাইকেল শেয়ারিং সেবা   আলজি দাধাহ || আলোময় চাকমা   বাংলাদেশের সমর্থকদের প্রতি মেসির ভালোবাসা   জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল ত্যাগ যুক্তরাষ্ট্রের   পাহাড় ধস, পাহাড়িরা নয়, দায়ী মূলত সমতল থেকে নিয়ে যাওয়া বাঙালিরা : আবু সাদিক   কবি সুফিয়া কামালের ১০৭তম জন্মবার্ষিকী আজ   মিশরকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে দিল রাশিয়া   পোল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়ে মাঠে নাচ দেখাল সেনেগাল   জাতীয় অধ্যাপক হলেন তিন বরেণ্য শিক্ষাবিদ   এক সপ্তাহে পাহাড়ে ৩ জন আঞ্চলিক নেতাকর্মী খুন   অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে রোহিঙ্গাদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১০, নিহত ১   কলম্বিয়ার বিপক্ষে জাপানের জয়   চট্টগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় মডেল তিথি বড়ুয়া নিহত   বাংলাদেশ থেকে তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে নিজের দেশে ফিরলেন জার্মান তরুণী   খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে প্রধান শিক্ষক দেবদাস চাকমাকে আটক করেছে পুলিশ
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / অ্যাম্বুলেন্সের অভাবে ৭ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে গর্ভবতী আদিবাসী মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি

অ্যাম্বুলেন্সের অভাবে ৭ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে গর্ভবতী আদিবাসী মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি

প্রকাশিত: ২০১৮-০৬-০৭ ১৬:৪৫:৩৮

   আপডেট: ২০১৮-০৬-০৭ ১৬:৪৮:১৮

নিউজ ডেস্ক

কেরালার প্রত্যন্ত গ্রামে অ্যাম্বুলেন্সের অভাবে এক আদিবাসী গর্ভবতী নারীকে বিছানার চাদরে করে ৭ কিলোমিটার রাস্তা পেরিয়ে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, পরিবারের স্বজনেরা বিছানার চাদরকেই স্ট্রেচারের মত ব্যবহার করে। সেখানেই ওই নারীকে ঝুলিয়ে হাসপাতালে আনা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত মঙ্গলবার আট্টাপারি গ্রামের পাল্লাকার এলাকার ২৭ বছর বয়সী ওই নারীর প্রসব যন্ত্রণা ওঠে। কিন্তু এলাকায় কোনো অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা ছিল না। তাছাড়া সেখানকার যাতায়াতের ব্যবস্থাও ভালো না।

ভিডিওতে, লাঠির সাহায্য নিয়ে পরিবারের ৬ জন সদস্য ওই নারীকে কাঁধে করে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছে। কঠিন পথ পাড়ি দিতে হচ্ছে তাদের।

জানা গেছে, আদিবাসী হাসপাতালে ভর্তির পর ওই নারী এক শিশুকন্যার জন্ম দিয়েছেন। আর হাসপাতালের চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, বর্তমানে মা ও শিশু দু’‌জনেই সুস্থ আছেন।

ফলে ওই নারীর স্বামী এবং গ্রামের অন্যান্যরা মিলে বিছানার চাদরকেই স্ট্রেচারের মত ব্যবহার করে সেখানে শুইয়ে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। দীর্ঘ ৭ কিলোমিটার রাস্তার পাড়ি দেয়ার সেই ভিডিও সংবাদসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ পেলে তা ভাইরাল হয়ে যায়। অনেকে প্রশাসনের দিকে সমালচনা করছেন।

ভিডিও :

আপনার মন্তব্য

আলোচিত