শিরোনাম

  প্রযুক্তি ফাঁদে পড়েছেন রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক   সেনাক্যাম্প কমান্ডার কর্তৃক জনপ্রতিনিধিদের উপর হয়রানি ও নির্যাতনের ঘটনায় জেএসএসের প্রতিবাদ   বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী   রোনালদোর গোলে এগিয়ে গেল পর্তুগাল   ইন্দোনেশিয়ায় ফেরি ডুবিতে নিখোঁজ ১৯২   চালু হলো বাইসাইকেল শেয়ারিং সেবা   আলজি দাধাহ || আলোময় চাকমা   বাংলাদেশের সমর্থকদের প্রতি মেসির ভালোবাসা   জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল ত্যাগ যুক্তরাষ্ট্রের   পাহাড় ধস, পাহাড়িরা নয়, দায়ী মূলত সমতল থেকে নিয়ে যাওয়া বাঙালিরা : আবু সাদিক   কবি সুফিয়া কামালের ১০৭তম জন্মবার্ষিকী আজ   মিশরকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে দিল রাশিয়া   পোল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়ে মাঠে নাচ দেখাল সেনেগাল   জাতীয় অধ্যাপক হলেন তিন বরেণ্য শিক্ষাবিদ   এক সপ্তাহে পাহাড়ে ৩ জন আঞ্চলিক নেতাকর্মী খুন   অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে রোহিঙ্গাদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১০, নিহত ১   কলম্বিয়ার বিপক্ষে জাপানের জয়   চট্টগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় মডেল তিথি বড়ুয়া নিহত   বাংলাদেশ থেকে তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে নিজের দেশে ফিরলেন জার্মান তরুণী   খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে প্রধান শিক্ষক দেবদাস চাকমাকে আটক করেছে পুলিশ
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / রাঙ্গামাটি ,খাগড়াছড়ি, ও বান্দরবান জেলায় মার্কিন নাগরিকদের ভ্রমণ বিপজ্জনক : যুক্তরাষ্ট্র

রাঙ্গামাটি ,খাগড়াছড়ি, ও বান্দরবান জেলায় মার্কিন নাগরিকদের ভ্রমণ বিপজ্জনক : যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত: ২০১৮-০৬-০২ ১৯:০০:৫৫

   আপডেট: ২০১৮-০৬-০২ ১৯:১২:৩৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বাংলাদেশ ভ্রমণে মার্কিন নাগরিকদের অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার জারি করা এই সতর্কতায় অপরাধ ও সন্ত্রাসবাদের কারণে মার্কিন নাগরিকদের ঢাকা ও পার্বত্য চট্টগ্রাম ভ্রমণের বিষয়টি সতর্কতার সঙ্গে বিবেচনার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

নির্দেশিকা সূচীতে বলা হয়, অপহরণ ও অন্যান্য নিরাপত্তা জনিত সমস্যার কথা উল্লেখ করে খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি ও বান্দরবান পার্বত্য জেলায় ভ্রমণ বিপজ্জনক । এসব স্থানে রাজনৈতিক বিক্ষোভ, অবরোধ ও সহিংস-সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। এই জেলাগুলোতে ভ্রমণ করতে হলে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা কার্যালয়ের যথাযথ অনুমতি নিতে হবে।

নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, সশস্ত্র ডাকাতি, হামলা ও ধর্ষণের মতো সহিংস অপরাধ ব্যাপক আকারে ঘটছে। সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো বাংলাদেশে সম্ভাব্য হামলার পরিকল্পনা করে যাচ্ছে। তারা সামান্য বা কোনও হুমকি না দিয়েই হামলা চালাতে পারে। তারা পর্যটন এলাকা, যোগাযোগ কেন্দ্র, বাজার বা শপিংমল, রেস্টুরেন্ট, ধর্মীয় স্থাপনা ও স্থানীয় সরকারি অফিসগুলোতে হামলা চালাতে পারে বলে নির্দেশিকায় বলা হয়েছে।

এর আগে এপ্রিলে এ সতর্কতায় বাংলাদেশকে দ্বিতীয় পর্যায়ে (লেভেল ২) রাখা হয়েছিল। এবারও আগের লেভেল বহাল রয়েছে তবে সতর্কতা অবলম্বনের মাত্রা বাড়ানো হয়েছে।

বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের ব্যাপক উপস্থিতি থাকা স্বত্ত্বেও হামলার ঘটনা ঘটতে পারে বলেও আশঙ্কা ব্যক্ত করা হয়েছে। ঢাকায় অপরাধ প্রবণতা বেশি এবং রাতে অপরাধের মাত্রা বেড়ে যায়। বিশেষ করে চুরি, ডাকাতি, গাড়িচুরি, ধর্ষণ, হামলা ও ছিনতাইয়ের মত ঘটনা ঘটছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত