শিরোনাম

  প্রযুক্তি ফাঁদে পড়েছেন রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক   সেনাক্যাম্প কমান্ডার কর্তৃক জনপ্রতিনিধিদের উপর হয়রানি ও নির্যাতনের ঘটনায় জেএসএসের প্রতিবাদ   বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী   রোনালদোর গোলে এগিয়ে গেল পর্তুগাল   ইন্দোনেশিয়ায় ফেরি ডুবিতে নিখোঁজ ১৯২   চালু হলো বাইসাইকেল শেয়ারিং সেবা   আলজি দাধাহ || আলোময় চাকমা   বাংলাদেশের সমর্থকদের প্রতি মেসির ভালোবাসা   জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল ত্যাগ যুক্তরাষ্ট্রের   পাহাড় ধস, পাহাড়িরা নয়, দায়ী মূলত সমতল থেকে নিয়ে যাওয়া বাঙালিরা : আবু সাদিক   কবি সুফিয়া কামালের ১০৭তম জন্মবার্ষিকী আজ   মিশরকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে দিল রাশিয়া   পোল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়ে মাঠে নাচ দেখাল সেনেগাল   জাতীয় অধ্যাপক হলেন তিন বরেণ্য শিক্ষাবিদ   এক সপ্তাহে পাহাড়ে ৩ জন আঞ্চলিক নেতাকর্মী খুন   অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে রোহিঙ্গাদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১০, নিহত ১   কলম্বিয়ার বিপক্ষে জাপানের জয়   চট্টগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় মডেল তিথি বড়ুয়া নিহত   বাংলাদেশ থেকে তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে নিজের দেশে ফিরলেন জার্মান তরুণী   খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে প্রধান শিক্ষক দেবদাস চাকমাকে আটক করেছে পুলিশ
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / বিএনপিকে আবারো সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যায়িত করেছে কানাডার আদালত

বিএনপিকে আবারো সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যায়িত করেছে কানাডার আদালত

প্রকাশিত: ২০১৮-০৫-২২ ২৩:৪১:৫২

বাসস

বাংলাদেশে দেশব্যাপী হরতাল পালনে বিএনপি’র সহিংস ও নৈরাজ্যকর ভূমিকার জন্য দলের এক কর্মীকে রাজনৈতিক আশ্রয়দানে অস্বীকৃতি জানিয়ে কানাডার একটি ফেডারেল কোর্ট পুনরায় বিএনপিকে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে বর্ণনা করেছে।

ওয়েবসাইটে প্রদত্ত আদালতের রায়ে দেখা যায় যে, ফেডারেল কোর্টের বিচারক বিচারপতি হেনরি এস ব্রাউন গত ৪ মে এক রায়ে বিএনপি কর্মী মো. মোস্তফা কামালের রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন নাকচ করে দিয়ে তার পর্যবেক্ষণে বিএনপিকে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যা দেন।

আদালতের রায়ে বলা হয়, ‘আবেদনকারী ৩৩ বছর বয়স্ক ও বাংলাদেশী নাগরিকের ২০১৫ সালে বাংলাদেশ ছেড়ে যায় এবং কানাডায় শরণার্থী হিসেবে আবেদন করে। তার এই শরণার্থী হওয়ার আবেদন স্থগিত করা হয়েছে।’

রায়ে বলা হয়, তার এই দাবি ছিলো অগ্রহণযোগ্য। কারণ, সে এমন একটি সংগঠনর সদস্য ছিলো যেটি সন্ত্রাসি কর্মকান্ড এবং জোরপূর্বক বাংলাদেশের সরকার উৎখাতের সঙ্গে যুক্ত ছিলো- এটি বিশ্বাসের মতো যথেষ্ট কারণ ছিলো।

কানাডার জননিরাপত্তা ও জরুরি প্রস্তুতি বিষয়ক মন্ত্রীর অভিযোগÑ আবেদনকারী যে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) একজন সদস্য ছিলো তা বিশ্বাস করার মতো যৌক্তিক কারণ ছিলো।

মন্ত্রীর আরো অভিযোগ- যে বিএনপি এমন একটি দল যেটি সন্ত্রাস ও বাংলাদেশের সরকারকে জোরপূর্বক উচ্ছেদের সঙ্গে যুক্ত ছিলো।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত