শিরোনাম

  প্রযুক্তি ফাঁদে পড়েছেন রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক   সেনাক্যাম্প কমান্ডার কর্তৃক জনপ্রতিনিধিদের উপর হয়রানি ও নির্যাতনের ঘটনায় জেএসএসের প্রতিবাদ   বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী   রোনালদোর গোলে এগিয়ে গেল পর্তুগাল   ইন্দোনেশিয়ায় ফেরি ডুবিতে নিখোঁজ ১৯২   চালু হলো বাইসাইকেল শেয়ারিং সেবা   আলজি দাধাহ || আলোময় চাকমা   বাংলাদেশের সমর্থকদের প্রতি মেসির ভালোবাসা   জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল ত্যাগ যুক্তরাষ্ট্রের   পাহাড় ধস, পাহাড়িরা নয়, দায়ী মূলত সমতল থেকে নিয়ে যাওয়া বাঙালিরা : আবু সাদিক   কবি সুফিয়া কামালের ১০৭তম জন্মবার্ষিকী আজ   মিশরকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে দিল রাশিয়া   পোল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়ে মাঠে নাচ দেখাল সেনেগাল   জাতীয় অধ্যাপক হলেন তিন বরেণ্য শিক্ষাবিদ   এক সপ্তাহে পাহাড়ে ৩ জন আঞ্চলিক নেতাকর্মী খুন   অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে রোহিঙ্গাদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১০, নিহত ১   কলম্বিয়ার বিপক্ষে জাপানের জয়   চট্টগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় মডেল তিথি বড়ুয়া নিহত   বাংলাদেশ থেকে তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে নিজের দেশে ফিরলেন জার্মান তরুণী   খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে প্রধান শিক্ষক দেবদাস চাকমাকে আটক করেছে পুলিশ
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / ত্রিপুরা রাজ্যে ভয়াবহ বন্যা, পানির নিচে ৩ হাজার বাড়ি

ত্রিপুরা রাজ্যে ভয়াবহ বন্যা, পানির নিচে ৩ হাজার বাড়ি

প্রকাশিত: ২০১৮-০৫-২১ ২১:৫২:৪০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে গত চার দিনের টানা বর্ষণের ফলে সৃষ্ট বন্যা ও কাদাধ্বসে ছয় ব্যক্তি মারা গেছে। এছাড়া কমপক্ষে তিন হাজার বাড়িঘর পানির নিচে তলিয়ে গেছে। এমনকি রাজ্যের রাজধানী আগরতলার অনেক এলাকাও জলমগ্ন হয়ে আছে। রাজ্যের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া তিন নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। খবর দ্য হিন্দুর।

কর্মকর্তারা জানান, ত্রিপুরার প্রধান নদীগুলোর উৎপত্তিস্থল উত্তরাঞ্চলীয় পাহাড়ী এলাকায় তুমুল বর্ষণের কারণে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে। বন্যায় নিচু এলাকাগুলো সবচাইতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানে আটকেপড়া লোকজনকে সরিয়ে আনা হয়েছে।

বন্যায় অসম-আগরতলা ন্যাশনাল হাইওয়ের একটি অংশও তলিয়ে গিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে কাদাধ্বসে ছয় জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। তাদের তিনজন একই পরিবারের।

নিচু এলাকাসমূহের কমপক্ষে তিন হাজার পরিবারকে অস্থায়ী আশ্রয়শিবিরে সরিয়ে আনা হয়েছে। দুর্গত মানুষের সহায়তায় সরকারি ও বেসরকারি সংস্থা একযোগে কাজ করছে।

রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব একটি সম্মেলনে যোগ দিতে অসমের রাজধানী গুয়াহাটিতে রয়েছেন। তাঁর অনুপস্থিতে সরকারি কাজকর্ম দেখভাল করছেন শিক্ষামন্ত্রী রতন লাল নাথ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত