শিরোনাম

  ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর জন্য মাতৃভাষায় পুস্তক প্রকাশনার বিধান রেখে খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা   সরকারী চাকরিতে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য কোটা না হলেও সমস্যা হবে না   রুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু   দুই আদিবাসী কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্তদের সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি   দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি ও ভারী বর্ষণ হতে পারে   আদিবাসী মানবাধিকার সুরক্ষাকর্মীদের সম্মেলন ২০১৮ উদযাপন   ব্লগার বাচ্চু হত্যার সঙ্গে ‘জড়িত’ ২ জঙ্গি নিহত   জুমের বাম্পার ফলনে রাঙ্গামাটির চাষিদের মুখে হাসি   সরকারি চাকরিতে আদিবাসী কোটা বহাল দাবি জানাল আদিবাসীরা   আয়ারল্যান্ড প্রবাসী বাংলাদেশের এক মন্ত্রী দ্বারা হেনস্ত হওয়াতে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নিন্দা   শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পেয়েছে   মিয়ানমারে রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত   শহীদ আলফ্রেড সরেন হত্যার ১৮ বছর: হত্যাকারীদের দ্রুত বিচারের দাবি জাতীয় আদিবাসী পরিষদের   ভারতের কাছে ১-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা   সরকারী চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা ছাড়া সব কোটা বাতিল হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী   জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান মারা গেছেন   ঈদের ছুটি কাটানো হলোনা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার নিরীহ ধীরাজ চাকমার   খাগড়াছড়িতে পৃথক ঘটনার জন্য জেএসএস(সংস্কারবাদী) ও নব্য মুখোশ বাহিনীকে দায়ী করেছে : ইউপিডিএফ   নানিয়ারচর থেকে খাগড়াছড়ি   খাগড়াছড়িতে ৬ জনকে গুলি করে হত্যা !
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / মিয়ানমারে আদিবাসী নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে সেনাবাহিনী

মিয়ানমারে আদিবাসী নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে সেনাবাহিনী

প্রকাশিত: ২০১৮-০৪-০৯ ২১:০৩:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মিয়ানমারে কারেন সম্প্রদায়ের এক আদিবাসী নেতাকে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনাটি গেল বৃহস্পতিবার মিয়ানমার দক্ষিণ বার্মায়, কারেন রাজ্যে লার মু ফ্লো গ্রামে ঘটে। এ ঘটনায় স্থানীয় গ্রামবাসী ও সাহায্যকারী সংস্থা মায়ানমারের সশস্ত্র বাহিনী (থাদমাদো)কে দায়ী করেছে।

মিয়ানমারের সংবাদ মাধ্যম ইরাবতি জানিয়েছে, সশস্ত্র দল কারেন ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি এবং সশস্ত্র বাহিনী (থাদমাদো) সরকারী বাহিনীদের সাথে যুদ্ধ চলছে। যদিও আগে সেনাবাহিনী এবং জাতিগত সশস্ত্র দলের উভয়পক্ষে দেশব্যাপী যুদ্ধবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল।

প্রায় ২৩০০ গ্রামবাসী যারা আগে বলপূর্বক তাদের এলাকা থেকে বাস্তচুত হয়েছে বর্তমানে এখানে তারা ফিরে যেতে সাহস পাচ্ছে না। কারণ সেই এলাকায় ইতিমধ্যে অবৈধভাবে সরকারী সেনাবাহিনী দখল নিয়েছে।

সো ও মো (৪২) নামে এক আদিবাসী জাতিগত নেতা গেল ৫ এপ্রিল বাড়িতে ফিরে যাওয়ার সময় গুলি করে হত্যা করা হয়। তখন তিনি মোটরসাইকেল যোগে বাড়িতে ফিরছিলেন। স্থানীয় গ্রামবাসীকে উদ্ধৃত করে কারেন এনভায়রনমেন্টাল অ্যান্ড সোশ্যাল অ্যাকশন নেটওয়ার্কের একজন সদস্য জানান, যখন ঘটনাটি ঘটে এসময় মোটরসাইকেলে নিহত ব্যক্তির বন্ধু আরেক আরোহী পালিয়ে যেতে সক্ষম হন।

গ্রামবাসী ও জরুরী সহায়তাকারী দল জানিয়েছে গেল ৬ এপ্রিল নিহত ব্যক্তির লাশ সেই এলাকা থেকে আনতে গিয়েছিল কিন্তু আনতে পারেনি। এর পর শনিবার ও রবিবার গ্রামবাসীরা আবার লাশ আনতে গেলে মিয়ানমার (থাদমাদো) সৈন্যদের ভয়ে আনতে পারেনি।

সাও সোয়ে দো নামে এক ব্যক্তি সংবাদ মাধ্যম ইরাবতিকে জানিয়েছেন, নিহত ব্যক্তি মুত্রো বা পাপুন আদিবাসী কারেন সম্প্রদায়ের আইনজীবী ও নেতা ছিলেন। তিনি কারেন সম্প্রদায়ের ভূমি ও বন প্রশাসনের অধিকারসংরক্ষণের পাশাপাশি জনগণের কল্যাণে কাজ করতেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত