শিরোনাম

  ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর জন্য মাতৃভাষায় পুস্তক প্রকাশনার বিধান রেখে খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা   সরকারী চাকরিতে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য কোটা না হলেও সমস্যা হবে না   রুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু   দুই আদিবাসী কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্তদের সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি   দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি ও ভারী বর্ষণ হতে পারে   আদিবাসী মানবাধিকার সুরক্ষাকর্মীদের সম্মেলন ২০১৮ উদযাপন   ব্লগার বাচ্চু হত্যার সঙ্গে ‘জড়িত’ ২ জঙ্গি নিহত   জুমের বাম্পার ফলনে রাঙ্গামাটির চাষিদের মুখে হাসি   সরকারি চাকরিতে আদিবাসী কোটা বহাল দাবি জানাল আদিবাসীরা   আয়ারল্যান্ড প্রবাসী বাংলাদেশের এক মন্ত্রী দ্বারা হেনস্ত হওয়াতে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নিন্দা   শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পেয়েছে   মিয়ানমারে রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত   শহীদ আলফ্রেড সরেন হত্যার ১৮ বছর: হত্যাকারীদের দ্রুত বিচারের দাবি জাতীয় আদিবাসী পরিষদের   ভারতের কাছে ১-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা   সরকারী চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা ছাড়া সব কোটা বাতিল হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী   জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান মারা গেছেন   ঈদের ছুটি কাটানো হলোনা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার নিরীহ ধীরাজ চাকমার   খাগড়াছড়িতে পৃথক ঘটনার জন্য জেএসএস(সংস্কারবাদী) ও নব্য মুখোশ বাহিনীকে দায়ী করেছে : ইউপিডিএফ   নানিয়ারচর থেকে খাগড়াছড়ি   খাগড়াছড়িতে ৬ জনকে গুলি করে হত্যা !
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / নিজেদের নির্দোষ দাবি মিয়ানমার সেনাবাহিনীর

নিজেদের নির্দোষ দাবি মিয়ানমার সেনাবাহিনীর

প্রকাশিত: ২০১৭-১১-১৪ ১২:৩১:৫৭

   আপডেট: ২০১৭-১১-১৪ ১২:৪০:৩৩

ফাইল ছবি/এশিয়া টাইমস

অনলাইন ডেস্ক

রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে অভিযোগের প্রেক্ষিতে নিজেদের নির্দোষ দাবি করে অভ্যন্তরীণ তদন্তের ফলাফল প্রকাশ করেছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী।

তদন্ত প্রতিবেদনে তারা কোনো রোহিঙ্গা মুসলিমকে হত্যা, তাদের গ্রাম পুড়িয়ে দেয়া, নারী ও মেয়েদের ধর্ষণ এবং সম্পত্তি চুরির অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

রোহিঙ্গা সংকটকে জাতিসংঘ ‘জাতিগত নির্মূল অভিযানের নিখুঁত’ ঘটনা হিসেবে অভিহিত করেছে।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, মিয়ানমার সেনাবাহিনীর তদন্ত প্রতিবেদনটি হোয়াইটওয়াশ’এর একটি প্রচেষ্টা ছিল। সংস্থাটি জাতিসংঘ পর্যবেক্ষকদের ওই অঞ্চলে প্রবেশের অনুমতি দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

ওই অঞ্চলে সংবাদমাধ্যমের প্রবেশ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। তবে খুবই কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত এক সফরে বিবিসির দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সংবাদদাতা জনাথন হেড দেখেছেন যে, সশস্ত্র পুলিশ সদস্যদের সামনেই এক রোহিঙ্গা গ্রামে অগুন দিচ্ছে বৌদ্ধরা।

পুলিশ বাহিনীর এক পোস্টে রোহিঙ্গা জঙ্গিদের হামলা ও কয়েকজন নিরাপত্তা সদস্য নিহত হওয়ার পর ২৫ আগস্ট থেকে সেনাবাহিনী রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গাদের গ্রামগুলোতে অভিযান চালিয়ে হত্যা, ধর্ষণ ও জ্বালাও-পোড়াও চালায়।

এর ফলে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম সম্প্রদায়ের পাঁচ লাখের বেশি লোক বাস্তুচ্যুত হয় এবং বৌদ্ধ নিয়ন্ত্রিত মিয়ানমার থেকে ছয় লাখের বেশি লোক বাংলাদেশে পালিয়ে যায়।

তবে ফেসবুকে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে সেনাবাহিনী বলেছে, তাদেরকে নির্দোষ প্রমাণে তারা কয়েক হাজার গ্রামবাসীর সাক্ষাতকার নিয়েছে। এতে বলা হয়, গ্রামবাসী বলেছে যে, সেনাবাহিনী

-কোনো নিরাপরাধ গ্রামবাসীকে গুলি করেনি,
-নারীদের ধর্ষণ ও যৌন সহিংসতায় জড়িত নয়,
-গ্রামবাসীদের গ্রেফতার, মারধোর ও হত্যা করেনি,
-গ্রামবাসীদের কাছ থেকে রৌপ্য, স্বর্ণ, যানবাহন বা পশুপাখি চুরি করেনি,
- মসজিদগুলোতে আগুন লাগায়নি
-গ্রামবাসীদের হুমকি দেয়নি, অত্যাচার করেনি এবং বেরও করে দেয়নি
-তারা বাড়িঘরে আগুনও লাগায়নি।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের (মিয়ানমার তাদেরকে বাঙালী বলে) কিছু সন্ত্রাসী বাড়িঘরে আগুন দেয়ার জন্য দায়ী। যাতে করে লাখ লাখ লোক পালিয়ে যায়। কারণ তাদের এমন নির্দেশ দেয়া হয়েছে এবং সন্ত্রাসীদের ভয়ভীতিও দেখানো হয়েছে।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের এক মুখপাত্র বলেন, মিয়ানমার সেনাবাহিনী এটা স্পষ্ট করেছে যে, তাদের জবাবদিহিতা করার কোনো ইচ্ছাই নেই।

তিনি বলেন, এখন তাই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এই ধৃষ্টতাপূর্ণ নির্যাতনের ঘটনাগুলো শাস্তির বাইরে না থেকে যায় তা নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ নিতে হবে।

এদিকে রাখাইন রাজ্যে অভিযানের দায়িত্বে থাকা সেনাবাহিনীর ওয়েস্টার্ন কমান্ডের প্রধান মেজর জেনারেল মাউং সোয়েকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সোয়ে তিন্ত নাইংকে তার স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন। তবে কি কারণে ওয়েস্টার্ন কমান্ড ইন রাখাইন এর প্রধানকে বদলী করা হলো তা জানানো হয়নি।

সূত্র: বিবিসি

আপনার মন্তব্য

আলোচিত