শিরোনাম

  নানিয়াচর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান প্রীতিময় চাকমাকে অপহরণ   ছেলেদের চেয়ে এবারও এগিয়ে মেয়েরা   চট্টগ্রাম বোর্ডের পাশের হার ৬২.৭৩ %   যারা ফেল করেছে তাদের বকাঝকা করবেন না : প্রধানমন্ত্রী   এইচএসসি তে পাসের ধস নেমেছে এবার   এইচএসসি ও সমমানে পাসের হার এবার ৬৬.৬৪   হাসপাতাল ছাড়ার পর এবার থাই কিশোররা সবাই শ্রামণ হয়ে প্রবজ্যা গ্রহণ করবে   থাইল্যান্ডের গুহায় আটকা পড়া কিশোররা হাসপাতাল ছেড়েছে   ৮ দল নিয়ে বাম গণতান্ত্রিক জোটের আত্মপ্রকাশ   আগামীকাল এইচএসসির ফল প্রকাশ হবে   নেলসন ম্যান্ডেলার জন্ম শতবার্ষিকী আজ   চট্টগ্রাম আঞ্চলিক অফিসেই মিলবে হারানো জাতীয় পরিচয়পত্র   উ. কোরিয়াকে নিরাপত্তা নিশ্চয়তা প্রদানে অংশ নিতে প্রস্তুত রাশিয়া   রাঙামাটিতে ইউপিডিএফ নেতা রাহেলকে ৪ দিনের রিমান্ড দিয়েছে আদালত   এবার খাগড়াছড়িতে সেটেলার কর্তৃক আদিবাসী স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ   দেশে ছয় মাসে ধর্ষণের শিকার ৫৯২: মহিলা পরিষদ   ফ্রান্সে বিশ্বকাপ বিজয় উল্লাস করতে গিয়ে ব্যাপক সংঘর্ষ-লুটপাট, নিহত ২   মিয়ানমারে জাতিগত ৩ গ্রুপের বিদ্রোহীদের সংঘর্ষে শতাধিক মানুষ পালিয়েছে   নির্বাচন আসছে, সংখ্যালঘুদের মধ্যে চিন্তা বাড়ছে: জাফর ইকবাল   ডুবুরী সানামের জন্য শোক ও মঙ্গলকামনা করেছেন গুহায় আটকা পড়া কিশোররা
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / সুইজারল্যান্ডের আল্পস পর্বতমালায় নিখোঁজ হয়ে যাওয়া ৭৫ বছর পর বরফে চাপা পড়া দম্পতির লাশ উদ্ধার

সুইজারল্যান্ডের আল্পস পর্বতমালায় নিখোঁজ হয়ে যাওয়া ৭৫ বছর পর বরফে চাপা পড়া দম্পতির লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: ২০১৭-০৭-১৯ ১০:৩৪:০৫

   আপডেট: ২০১৭-০৭-১৯ ১২:৩০:৪৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৭৫ বছর আগে সুইজারল্যান্ডের আল্পস পর্বতমালায় নিখোঁজ হয়ে যাওয়া এক দম্পতির মৃতদেহ বরফে জমাট বাঁধা অবস্থায় পাওয়া গেছে। ১৯৪২ সালে ভ্যালিয়াস চারণভূমিতে তারা গিয়েছিলেন তাদের গরুর দুধ সংগ্রহ করতে।

হাফিংটন পোস্ট ও বিবিসি জানিয়েছে, দুই হাজার মিটারেরও বেশি উঁচুতে এক হিমবাহের বরফ গলতে শুরু করলে তাদের মৃতদেহ দু’টি পাওয়া যায়। মৃতদেহ দু’টি অক্ষত রয়েছে।

স্যানফ্লরোন নামের ওই হিমবাহে এক স্কি-কোম্পানির কর্মী মৃতদেহ দু’টি আবিষ্কার করেন। ধারণা করা হচ্ছে যে, দু’জন বরফের খাদে পড়ে গিয়েছিলেন।

কর্মীটি দেখতে পান, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার পোশাক পরা একজন পুরুষ ও একজন মহিলা বরফের নিচে চাপা পড়ে আছেন। পাশে একটি ব্যাগ, বোতল, জুতো ও অন্যান্য জিনিসপত্রও পড়ে ছিলো।

এই দম্পতির সাত ছেলেমেয়ে ছিলো। তাদের সর্বকনিষ্ঠ মেয়ে মার্সেলিন উড্রি দুমুলাঁর বর্তমান বয়স ৭৯ বছর।

তিনি বলেছেন, আমরা সারা জীবন ধরে তাদের খুঁজেছি। তাদের মৃতদেহ পাবার খবরে একটা শান্তি বোধ করছি যে, আমরা এখন তাদের একটা যথাযথ শেষকৃত্য করতে পারবো।

তিনি বলেছেন, তার বাবা ছিলেন একজন জুতো প্রস্তুতকারক, এবং মা ছিলেন একজন শিক্ষক।

সূত্রঃহাফিংটন পোস্ট ও বিবিসি

 

ভিডিও :

আপনার মন্তব্য

আলোচিত