আজ শনিবার, | ২১ অক্টোবর ২০১৭ ইং

শিরোনাম

  কুমিল্লায় বিশ্ব শান্তি প্যাগোডা উদ্বোধন   আগামীকাল থেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা শুরু   নিজ নিজ মাতৃভাষা শেখার আহ্বান জানালেন \'উন্দুচ্যে বৈদ্য\'   বান্দরবানে জনসংহতি সমিতির সাধারণ সম্পাদক ক্যবামং মারমা পুনরায় উপজেলা চেয়ারম্যানে দায়িত্ব নিলেন   রোহিঙ্গাদের সংক্রামক রোগ পার্বত্য চট্টগ্রামে ছড়িয়ে পড়তে পারে || বিশেষজ্ঞদের কড়া সতর্ক   বৃষ্টি হতে পারে সারাদেশে, তিন নম্বর সংকেত দেখিয়ে যাওয়ার বুলেটিন   শিক্ষক এবং শিক্ষকতা || মুহম্মদ জাফর ইকবাল   ঢাবি ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু   মিয়ানমারের বিলাসবহুল হোটেল অগ্নিকান্ডে পুড়ে ছাই   যারা সন্ত্রাসের সাথে জড়িত তাদের ধর্ম পরিচয় আর থাকেনাঃ দলাই লামা   বিশ্বের সবচেয়ে বেশি শীত যেখানে   মন্ট্রিয়লে রোহিঙ্গাদের সহায়তায় চ্যারেটি ফান্ড ‘রেইজিং গালা’   বাঁশ কোড়ল আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী প্রিয় খাবার   ঢাবির \'ক\' ও \'চ\' ইউনিটের ফল প্রকাশ   দেশে ফিরেছেন খালেদা জিয়া   শ্যামা পূজা বৃহস্পতিবার   মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় চীনে আদিবাসীদের থামি পড়ে অংশগ্রহণ করবেন জেসিয়া ইসলাম   সন্ত্রাসীদের ধরতে শীঘ্রই তিন পার্বত্য জেলায় র‍্যাবের নতুন ইউনিট যাচ্ছে   পূর্ণ্য তীর্থ পূর্ব বিনাজুরী গ্রামের নিয়তি রানী বড়ুয়া চলে গেলেন না ফেরার দেশে   বেরোবির প্রভাষক পদে মাহমুদুলকে নিয়োগ দিতে উচ্চ আদালতের নির্দেশ

সুইজারল্যান্ডের আল্পস পর্বতমালায় নিখোঁজ হয়ে যাওয়া ৭৫ বছর পর বরফে চাপা পড়া দম্পতির লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: ২০১৭-০৭-১৯ ১০:৩৪:০৫

   আপডেট: ২০১৭-০৭-১৯ ১২:৩০:৪৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৭৫ বছর আগে সুইজারল্যান্ডের আল্পস পর্বতমালায় নিখোঁজ হয়ে যাওয়া এক দম্পতির মৃতদেহ বরফে জমাট বাঁধা অবস্থায় পাওয়া গেছে। ১৯৪২ সালে ভ্যালিয়াস চারণভূমিতে তারা গিয়েছিলেন তাদের গরুর দুধ সংগ্রহ করতে।

হাফিংটন পোস্ট ও বিবিসি জানিয়েছে, দুই হাজার মিটারেরও বেশি উঁচুতে এক হিমবাহের বরফ গলতে শুরু করলে তাদের মৃতদেহ দু’টি পাওয়া যায়। মৃতদেহ দু’টি অক্ষত রয়েছে।

স্যানফ্লরোন নামের ওই হিমবাহে এক স্কি-কোম্পানির কর্মী মৃতদেহ দু’টি আবিষ্কার করেন। ধারণা করা হচ্ছে যে, দু’জন বরফের খাদে পড়ে গিয়েছিলেন।

কর্মীটি দেখতে পান, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার পোশাক পরা একজন পুরুষ ও একজন মহিলা বরফের নিচে চাপা পড়ে আছেন। পাশে একটি ব্যাগ, বোতল, জুতো ও অন্যান্য জিনিসপত্রও পড়ে ছিলো।

এই দম্পতির সাত ছেলেমেয়ে ছিলো। তাদের সর্বকনিষ্ঠ মেয়ে মার্সেলিন উড্রি দুমুলাঁর বর্তমান বয়স ৭৯ বছর।

তিনি বলেছেন, আমরা সারা জীবন ধরে তাদের খুঁজেছি। তাদের মৃতদেহ পাবার খবরে একটা শান্তি বোধ করছি যে, আমরা এখন তাদের একটা যথাযথ শেষকৃত্য করতে পারবো।

তিনি বলেছেন, তার বাবা ছিলেন একজন জুতো প্রস্তুতকারক, এবং মা ছিলেন একজন শিক্ষক।

সূত্রঃহাফিংটন পোস্ট ও বিবিসি

 

ভিডিও :

আপনার মন্তব্য

আলোচিত