শিরোনাম

  ২৪ ডিসেম্বর থেকে পার্বত্য এলাকাসহ মাঠপর্যায়ে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন করা হবে   গ্রাম আদালতের একটি সফল গল্প   টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগের পর চার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব বণ্টন   আগামী ২৪ ডিসেম্বর জেএসসি ও প্রাথমিক সমাপনীর ফল প্রকাশ   নির্বাচনকালীন ইউএনও-ডিসির স্বাক্ষরে শিক্ষকদের বেতন-ভাতা : শিক্ষা মন্ত্রণালয়   খালেদার মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের বিভক্ত আদেশ   'তিন পার্বত্য জেলায় ৩৮ টি ভোটকেন্দ্রে হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হবে'   সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ন নির্বাচন নিশ্চিত করার আহ্বান ইউরোপীয় দেশগুলোর   তরুণ ও নারী ভোটাররাই আওয়ামী লীগের বিজয়ের প্রধান হাতিয়ারঃ কাদের   গত ৫ বছরে জেএসএস এমপি উন্নয়ন করতে পারেনি, যা করেছে আওয়ামীলীগ করেছে : দিপংকর তালুকদার   এখন থেকে সরকারি চাকরিতে যোগ দেওয়ার আগে মাদক পরীক্ষা বাধ্যতামূলক   'বান্দরবানে বিদেশি পর্যটকদের ভ্রমণে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই'   'নির্বাচনী প্রচারণায় রঙিন পোস্টার বা ব্যানার ব্যবহার করা যাবে না'   ৫৮টি নিউজ পোর্টাল খুলে দিয়েছে বিটিআরসি   বুধবার থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন প্রধানমন্ত্রী   বিএনপি ক্ষমতায় এলে শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন করার চেষ্ঠা করবো: মনি স্বপন দেওয়ান   তিন পাহাড়ে নৌকা নিয়ে মাঠে দৌড়াবেন যারা   আগামীকাল খালেদা জিয়ার অগ্নিপরীক্ষা   হিরোকে জিরো বানানো এত সহজ নয়, সফল হিরো আলমের চ্যালেঞ্জ   খাগড়াছড়িতে বনের রাজা পেয়েছেন ইউপিডিএফের প্রার্থী নতুন কুমার চাকমা
প্রচ্ছদ / সমগ্র দেশ / শিক্ষক কর্তৃক যৌন নির্যাতন, এক শিশুর মৃত্যু

শিক্ষক কর্তৃক যৌন নির্যাতন, এক শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০৯ ১৩:২১:৩৭

   আপডেট: ২০১৮-০১-১৭ ২৩:৩৫:৪৬

নিউজ ডেস্ক

খাগড়াছড়ির দীঘিনালার মেরুং আল ইক্রা হিফজুল মাদ্রাসায় শিক্ষকের যৌন নির্যাতনের শিকার শিশু ফরহাদ হোসেন (১০) দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর ৬ জানুয়ারি সন্ধ্যায় টাঙ্গাইলের একটি হাসপাতালে মারা গেছে। শিশুটির বাবা রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ফরহাদ হোসেনের বাবা রফিকুল ইসলাম জানান, তার ছেলেকে ধর্মীয় শিক্ষার জন্য আল ইক্রা হিফজুল মাদ্রাসায় ভর্তি করা হলে বিভিন্ন সময় মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ মো. নোমান যৌন নির্যাতন করতো। আর পড়া না পাড়ার অজুহাতে হাফেজ শরীফুল ইসলাম শারীরিক নির্যাতন করতো। এতে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে চট্টগ্রামের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। এবং মাদ্রাসার দুই শিক্ষককে আসামি করে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করা হয়।

৪ জানুয়ারি ফরহাদ হোসেন আবার অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ৫ জানুয়ারি টাঙ্গাইলের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং ৬ জানুয়ারি সন্ধ্যায় সে মারা যায়।  রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমার ছেলেকে যারা এভাবে নির্যাতন করে মেরে ফেলেছে, আমি তাদের বিচার চাই।’

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দীঘিনালা থানার উপরিদর্শক (এসআই) নূরুল আলম বলেন, ‘২০১৭ সালের ২৩ আগস্ট ফরহাদ হোসেনের বাবা দুইজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করার পর হাফেজ মো. নোমান (২২) যৌন নির্যাতন ও পড়া না পারার অজুহাতে নির্যাতন হাফেজ মোহাম্মদ শরীফুল ইসলামকে (৩৬) গ্রেফতার করা হয়। এবং তদন্ত শেষে দুইজনকে অভিযুক্ত করে ২০১৭ সালের ১৪ অক্টোবর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।

 

ছবিঃ প্রতীকী।

তথ্য সূত্রঃ পার্বত্য নিউজ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত