শিরোনাম

  ঢাবি শিক্ষার্থী প্রকট চাকমাসহ ১৩ শিক্ষার্থী পেলেন জগন্নাথ হল স্বর্ণপদক   চট্টগ্রামসহ অনেক জায়গায় ভারী বর্ষণ হতে পারে   ভিয়েতনামে বন্যায় ২০ জনের মৃত্যু , ১ লাখ ১০ হাজার হেক্টর জমির ফসল বিনষ্ট   দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলা   ছাত্রলীগকে প্রধানমন্ত্রী সতর্ক করেছেন: কাদের   থানকুনি পাতার জাদুকরি উপকারিতা   চট্টগ্রাম কর্ণফুলীতে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ, গ্রেফতার ৩   পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠা ও উন্নয়নে সেনাবাহিনীর ভূমিকা অপরিসীম : প্রধানমন্ত্রী   চিকিৎসা খাতে নতুন আবিষ্কার রঙিন ও থ্রি-ডি এক্স-রে   গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেঁদেছেন প্রধানমন্ত্রী   না ফেরার দেশে রাজীব মীর   নানিয়াচর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান প্রীতিময় চাকমাকে অপহরণ   ছেলেদের চেয়ে এবারও এগিয়ে মেয়েরা   চট্টগ্রাম বোর্ডের পাশের হার ৬২.৭৩ %   যারা ফেল করেছে তাদের বকাঝকা করবেন না : প্রধানমন্ত্রী   এইচএসসি তে পাসের ধস নেমেছে এবার   এইচএসসি ও সমমানে পাসের হার এবার ৬৬.৬৪   হাসপাতাল ছাড়ার পর এবার থাই কিশোররা সবাই শ্রামণ হয়ে প্রবজ্যা গ্রহণ করবে   থাইল্যান্ডের গুহায় আটকা পড়া কিশোররা হাসপাতাল ছেড়েছে   ৮ দল নিয়ে বাম গণতান্ত্রিক জোটের আত্মপ্রকাশ
প্রচ্ছদ / সমগ্র দেশ / সন্ত্রাসীদের ধরতে শীঘ্রই তিন পার্বত্য জেলায় র‍্যাবের নতুন ইউনিট যাচ্ছে

সন্ত্রাসীদের ধরতে শীঘ্রই তিন পার্বত্য জেলায় র‍্যাবের নতুন ইউনিট যাচ্ছে

প্রকাশিত: ২০১৭-১০-১৮ ১৭:৫৮:৩৮

নিউজ ডেস্ক

পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবানে এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) নতুন ইউনিট শ্রীঘ্রই কাজ করতে যাচ্ছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে চিঠিটি চলতি বছরে র‌্যাবের কাছে পাঠানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের এক-দশমাংশ আয়তনজুড়ে অবস্থিত পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের সার্বিক উন্নয়নের জন্য বর্তমান সরকার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড গ্রহণ করে যাচ্ছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে এ অঞ্চলের রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, শিক্ষাগত ও অর্থনৈতিক অধিকার এবং আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত হচ্ছে। তথাপি সাম্প্রতিককালে পার্বত্য অঞ্চলের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিবেচনায় কিছু বিষয় প্রতীয়মান হয়।

এসবের মধ্যে রয়েছে- পার্বত্য জেলাসমূহ খুন, গুম, সংঘর্ষ, অপহরণ, পাল্টা অপহরণ এবং চাঁদাবাজি ইত্যাদির ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। এ এলাকার জনসংখ্যাও নিয়ত বর্ধনশীল। সন্ত্রাসীরা এ এলাকায় ঘাঁটি করে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে। জেলা সদর কিংবা শহর এলাকায় ভীতি কিছুটা কম থাকলেও দুর্গম ও প্রত্যন্ত এলাকায় তা বিরাজমান।

র‌্যাব-৭ কর্তৃক স্বল্প সংখ্যক র‌্যাব সদস্য দ্বারা বৃহত্তর চট্টগ্রামের কক্সবাজার এবং ফেনী জেলায় কর্তব্য পালনের পাশাপাশি রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি এবং বান্দরবনের মতো দুর্গম ও বিশাল এলাকায় কর্তব্য পালন করা দুঃসাধ্য হয়ে পড়েছে। বর্তমান মায়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য ডিউটির পরিমাণ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।

এসব জেলায় খুন, গুম, সংঘর্ষ, অপহরণ, পাল্টা অপহরণ এবং চাঁদাবাজি ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় এ উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে সরকার। এরইমধ্যে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় থেকে পার্বত্য জেলাগুলোতে র‌্যাবের ক্যাম্প স্থাপন নিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত