শিরোনাম

  বিএনপি কাউন্সিলর দিয়ে রাজশাহীতে ৪০ আদিবাসী পরিবারকে উচ্ছেদের হুমকি   কাজাখস্তানে বাসে আগুননিহত ৫২ , প্রাণে বেঁচে গেল মাত্র পাঁচজন   'ওমাদু' এবার নিয়ে এসেছে আকর্ষনীয় চাকমা ফিল্ম 'VCR'   চাকমা জনগোষ্ঠীর গোজা বা গোত্তি পরিচিতি   প্রণব মুখার্জীকে সাকিবের উপহার   বেসরকারি ইক্যুইটি আসছে ভুটানে   কক্সবাজারে হিন্দু সম্প্রদায়ের একই পরিবারের চারজনের মৃতদেহ উদ্ধার   ঢাকা সিটিতে নির্বাচন না হলে পেছাবে না এসএসসি পরীক্ষা   কুমিল্লায় উদ্ধার করা হলো ৩শ’ বছর পুরোনো মূল্যবান বৌদ্ধ মন্দির সদৃশ নকশা   নিউজিল্যান্ডের নতুন চমক বেন হুইলার   রাখাইনে সহিংসতার পর শত শত স্কুল বন্ধ   চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডি.লিট ডিগ্রি পেলেন প্রণব মুখার্জি   রোহিঙ্গাদের জন্য আশ্রয়কেন্দ্র বানাচ্ছে মিয়ানমার   ২ বছরের মধ্যে রোহিঙ্গারা ফিরে যাবে, রূপরেখা চূড়ান্ত   আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারী ঢাকাতে ' কাচালং ওয়েলফেয়ার সোসাইটি'র' এক যুগপূর্তি উপলক্ষ্যে জুম্মদের পুনর্মিলনী ও বনভোজন   আদিবাসী নারীদের মধ্যে প্রথম পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করলেন রূপানন্দা   ১০ বছর পর বেনজির ভুট্টোর হত্যার দায় স্বীকার করেছে তালেবান   আজ চবিতে যাচ্ছেন প্রণব মুখার্জি   মানুষের মনের ও চিন্তার দূষণ দূর করতে হবে : প্রণব মুখার্জি   ২ এপ্রিল থেকে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু
প্রচ্ছদ / সমগ্র দেশ / মোরার আঘাতে বান্দরবানে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

মোরার আঘাতে বান্দরবানে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

প্রকাশিত: ২০১৭-০৫-৩০ ১৪:৪৮:১০

   আপডেট: ২০১৭-০৬-১২ ০০:০৬:২৯

অনলাইন ডেস্ক

ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’র আঘাতে পার্বত্য জেলা বান্দরবানে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ঝড়ে নাইক্ষ্যংছড়ি লামা, আলীকদম ও রুমা উপজেলায় শতাধিক কাঁচা ঘরবাড়ি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, চিম্বুক পাহাড়ের নীলগিরি পর্যটন কেন্দ্র ও নিরাপত্তা বাহিনীর অনেক ক্যাম্প ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গাছ চাপা পড়ে লামা ও নাইক্ষ্যংছড়িতে শিশুসহ ৪ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে লামায় আহত ক্যচিং থোয়াই ও শিশু কামরুলকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় লামা চকরিয়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। প্রচণ্ড ঝড়ের কারণে পুরো জেলায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

মঙ্গলবার ভোর থেকেই জেলা শহর ও উপজেলাগুলোতে বিদ্যুৎ নেই। বিদ্যুতের কারণে মোবাইল নেটওয়ার্কও বন্ধ হয়ে গেছে বিভিন্ন এলকায়। সড়কে গাছ পড়ে বান্দরবানের লামা, আলীকদম, চকরিয়া ও বান্দরবান থানছি সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে কক্সবাজার সংলগ্ন বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি ও লামা উপজেলা। এই এলাকার ঘুনধুম, বাইশারী সোনাইছড়ি এলাকায় সহস্রাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।

ঘুনধুম ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম জানান, ইউনিয়নে বেশির ভাগ ঘরবাড়িই ঝড়ে ভেঙে পড়েছে। বৃষ্টি হওয়ায় মানুষ কষ্টের মধ্যে পড়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে।'

বান্দরবান বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী চিংহ্লা মং মারমা জানান, বিদ্যুতের তারের উপর গাছ পড়ায় ও বিভিন্ন জায়গায় খুঁটি উপড়ে পড়ায় বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তবে লাইন সচল করতে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মীরা চেষ্টা চালাচ্ছে।

ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরির পর এলাকায় ত্রাণ পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মো. মাকসুদ চৌধুরী।

আপনার মন্তব্য


আলোচিত