শিরোনাম

  নৌকার জয় সুনিশ্চিত : প্রধানমন্ত্রী   আজ ইউপিডিএফ’র ২০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী   এবার থাইল্যান্ডে বৈধ হলো গাঁজা   ইউপিডিএফ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকলকে সংগ্রামী শুভেচ্ছা জানালেন প্রসিত বিকাশ খীসা   চীনা শিশুরা আর স্কুল পালাতে পারবে না!   আবার ক্ষমতায় গেলে ভুল সংশোধন করা হবে : কাদের   প্রধানমন্ত্রী থেকে মাতৃভাষার বই পেয়েছে ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীর শিশুরা   শুভ বড়দিন আজ   রোহিঙ্গাদের জন্য শীতবস্ত্র পাঠাল ভারত   ইন্দোনেশিয়ায় সুনামির আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪০০ অধিক ছাড়িয়েছে   টাকার মালা উপহার পেলেন ফখরুল!   মধ্যরাত থেকে নির্বাচনী মাঠে সেনাবাহিনী   ভোটের দিন ২৪ ঘণ্টা সব যান চলাচল বন্ধ   সেনা মোতায়েনে ভোটারদের মধ্যে আস্থা ফিরে আসবে: সিইসি   পানছড়িতে ইউপিডিএফের নির্বাচনী অফিসে এলোপাতাড়ি ব্রাশ ফায়ারে ২ জন নিহত!   জেএসসি ও পিইসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ   আগামী ৩০ তারিখ আমরা নৌকার বিজয় নিয়ে ঘরে ফিরবো: দীপংকর তালুকদার   ইন্দোনেশিয়ায় সুনামির আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২২২ জন   যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে তাদের ভোট দেবেন নাঃ প্রধানমন্ত্রী   ২৮ ডিসেম্বর থেকে ১ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত ৪ দিন মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা
প্রচ্ছদ / সংবাদ বিজ্ঞপ্তি / জনসংহতি সমিতির নেতাদের গ্রেফতারের প্রতিবাদ এবং তাদের নি:শর্ত মুক্তির দাবি

জনসংহতি সমিতির নেতাদের গ্রেফতারের প্রতিবাদ এবং তাদের নি:শর্ত মুক্তির দাবি

প্রকাশিত: ২০১৭-১১-০৪ ১৭:০৮:০০

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

গত ৩ নভেম্বর ২০১৭ রাঙ্গামাটি জেলাধীন বাঘাইছড়ি উপজেলার সিজক-দজর এলাকায় লুমপাড়া থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম যুব সমিতির সাবেক সভাপতি ও নিরীহ জুমচাষী অক্ষর চাকমাকে এবং ৩১ অক্টোবর ২০১৭ বান্দরবান জেলার রোয়াংছড়ি উপজেলার ভাঙ্গামুড়া কচ্ছপতলী মোড়ের যাত্রী ছাউনি থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির রোয়াংছড়ি সদর ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমলাসেন তঞ্চঙ্গ্যাকে অবৈধভাবে গ্রেফতারের ঘটনায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, গত ৩ নভেম্বর ২০১৭ ভোর আনুমানিক ৪:৩০ টায় বাঘাইহাট সেনা জোনের (১২ ইস্ট বেঙ্গলের) একদল সেনাসদস্য বাঘাইছড়ি সদর ইউনিয়নের সিজক-দজর এলাকায় লুমপাড়ায় তল্লাসী অভিযানের নামে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়ে এবং কয়েকজন এক নিরীহ ব্যক্তিকে আটক করে নির্যাতন করে। জানা যায় যে, সেনা সদস্যরা তিনটি দলে বিভক্ত হয়ে এলাকাটি ঘেরাও করে পরিত্যক্ত একটি জুমঘরে এলোপাতাড়ি গুলি ছোঁড়ে।

এ সময় সেনা সদস্যরা দজর এলাকার লুমপাড়া থেকে অক্ষর চাকমা (২৬) পীং- নিলেন্দ্র চাকমাসহ চারজন নিরীহ গ্রামবাসীকে আটক করে। আটকের পর পরই সেনা সদস্যরা অক্ষর চাকমার ব্যাগে একটি দেশীয় পিস্তল গুঁজে দেয়। এ সময় অক্ষর চাকমা প্রতিবাদ করলে তাকে এক সদস্য জোরে চড় ও লাথি মারে। আটকের কিছুক্ষণ পর অপর তিনজনকে ছেড়ে দিলেও অক্ষর চাকমাকে প্রথমে দজর বিজিবি ক্যাম্পে নিয়ে গিয়ে অমানুষিকভাবে মারধর করে। তারপর বাঘাইহাট সেনা জোনে নিয়ে গিয়ে সেখানে নির্যাতন করে বলে জানা যায়। পরে সন্ধ্যার দিকে সেনা সদস্যরা গুঁজে দেয়া পিস্তলসহ অক্ষর চাকমাকে বাঘাইছড়ি থানায় সোপর্দ করে।

অপরদিকে গত ৩১ অক্টোবর ২০১৭ গাছের ব্যবসা কাজে বান্দরবার জেলার রোয়াংছড়ি উপজেলার পাগলাছড়া পাড়ার কমলাসেন তঞ্চঙ্গ্যা অপর তিনজন সঙ্গী নিয়ে মোটর সাইকেল যোগে বান্দরবানে গিয়েছিলেন। দুপুরের দিকে একজন সঙ্গী নিয়ে কমলাসেন তঞ্চঙ্গ্যা বান্দরবানের মোঃ ফরিদ সওদাগর নামে জনৈক ব্যবসায়ীর সাথে কাঠ ব্যবসা সংক্রান্ত কাজ সেরে নিজ বাড়ি রোয়াংছড়ি উদ্দেশ্যে ফিরে আসার পথে সন্ধ্যা ৬.০০ ঘটিকার সময় রোয়াংছড়ি কাছাকাছি ভাঙ্গামুড়া নামক যাত্রীছাউনিতে টহলরত একদল সেনা আটক করে। সন্ধ্যায় ৭.০০ ঘটিকার দিকে রোয়াংছড়ি সাব-জোন কমান্ডার মেজর সালাহউদ্দিন এসে তাঁর গাড়িতে উঠিয়ে বান্দরবানে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে রাতভর মারপিট করে বলে জানা যায়। ২০১৬ সালের জুনে সংঘটিত মংপু মারমাকে অপহরণ মামলার সাথে মিথ্যাভাবে জড়িত করে তারপর দিন ১ নভেম্বর সকাল ১১টার দিকে বান্দরবান সদর থানায় সোপর্দ করে।

অস্ত্র গুঁজে দিয়ে কিংবা কোন মামলায় মিথ্যাভাবে জড়িত করে এরূপ অবৈধ আটক এবং ফ্যাসীবাদী দমন-পীড়ন অচিরেই বন্ধ করার জন্য এবং অক্ষর চাকমা ও কমলাসেন তঞ্চঙ্গ্যাকে অচিরেই নি:শর্ত মুক্তি দেয়ার জন্য জনসংহতি সমিতি জোর দাবি জানাচ্ছে।

 

সজীব চাকমা,সহ তথ্য ও প্রচার সম্পাদক,পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি।

আপনার মন্তব্য

এ বিভাগের আরো খবর



আলোচিত