শিরোনাম

  নৌকার জয় সুনিশ্চিত : প্রধানমন্ত্রী   আজ ইউপিডিএফ’র ২০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী   এবার থাইল্যান্ডে বৈধ হলো গাঁজা   ইউপিডিএফ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকলকে সংগ্রামী শুভেচ্ছা জানালেন প্রসিত বিকাশ খীসা   চীনা শিশুরা আর স্কুল পালাতে পারবে না!   আবার ক্ষমতায় গেলে ভুল সংশোধন করা হবে : কাদের   প্রধানমন্ত্রী থেকে মাতৃভাষার বই পেয়েছে ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীর শিশুরা   শুভ বড়দিন আজ   রোহিঙ্গাদের জন্য শীতবস্ত্র পাঠাল ভারত   ইন্দোনেশিয়ায় সুনামির আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪০০ অধিক ছাড়িয়েছে   টাকার মালা উপহার পেলেন ফখরুল!   মধ্যরাত থেকে নির্বাচনী মাঠে সেনাবাহিনী   ভোটের দিন ২৪ ঘণ্টা সব যান চলাচল বন্ধ   সেনা মোতায়েনে ভোটারদের মধ্যে আস্থা ফিরে আসবে: সিইসি   পানছড়িতে ইউপিডিএফের নির্বাচনী অফিসে এলোপাতাড়ি ব্রাশ ফায়ারে ২ জন নিহত!   জেএসসি ও পিইসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ   আগামী ৩০ তারিখ আমরা নৌকার বিজয় নিয়ে ঘরে ফিরবো: দীপংকর তালুকদার   ইন্দোনেশিয়ায় সুনামির আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২২২ জন   যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে তাদের ভোট দেবেন নাঃ প্রধানমন্ত্রী   ২৮ ডিসেম্বর থেকে ১ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত ৪ দিন মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা
প্রচ্ছদ / রাজনীতি / যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে তাদের ভোট দেবেন নাঃ প্রধানমন্ত্রী

যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে তাদের ভোট দেবেন নাঃ প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ২০১৮-১২-২৩ ২২:২৮:৪৯

অনলাইন ডেস্ক >>

যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে তারা দানব। তাই তাদের ভোট না দেওয়ার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত সবসময় ষড়যন্ত্র করেছে। ২০১৪ সালের নির্বাচন বানচাল করার জন্য তারা মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। আপনারা ওই দানবদের ভোট দিবেন না।’

রংপুরের পীরগঞ্জে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় রোববার (২৩ ডিসেম্বর) তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘তারা ক্ষমতায় আসা মানে গুম-খুনের রাজনীতি বেড়ে যাওয়া। তারা মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন নয় মানুষের জীবন নিতে পারে। আর অন্যদিকে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে জনগণের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়।’

এর আগে রংপুরের তারাগঞ্জে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আহসানুল হক চৌধুরী ডিউকের পক্ষে নৌকা মার্কায় ভোট চান শেখ হাসিনা।

ডিউককে পরিচয় করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনাদের কাছে ডিউককে তুলে দিয়ে গেলাম। নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আপনারা তাদের জয়ী করবেন এটাই আপনাদের কাছে আমার চাওয়া।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সাধারণ মানুষেরা যেন ভালো থাকে এটাই আওয়ামী লীগের মূল লক্ষ্য। আমরা ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়া ও যুব সমাজের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছি। এ ছাড়া বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে তাদের ট্রেনিং দিয়ে দিচ্ছি যাতে সহজেই জীবিকা নির্বাহ করতে পারে। কর্মসংস্থান ব্যাংক থেকে বিনা জামানতে দুই লাখ টাকা মাত্র দুই পার্সেন্ট সার্ভিস চার্জে ঋণের সুযোগ করে দিয়েছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘কৃষকরা ১০ টাকায় ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলতে পারে। ভর্তুকির টাকা ব্যাংকে চলে যাচ্ছে। কৃষকদের উপকারভোগী কার্ড দিয়েছি। এই কার্ড দিয়ে স্বল্পমূল্যে কৃষি উপকরণ কিনতে পারে। সার-বীজ সব সহজলভ্য করে দিয়েছি। কৃষক যাতে তার উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্য মূল্য পান তার ব্যবস্থাও করে দিয়েছি। দেশকে আমরা উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। একটি বাড়ি একটি খামার করে দিয়েছি। কোনোদিন যাতে খাদ্য নিরাপত্তায় ঘাটতি না হয়, মঙ্গা না হয় সে জন্যই একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প করে দিয়েছি।’

আপনার মন্তব্য

আলোচিত