শিরোনাম

  রাঙ্গামাটি কুদুকছড়িতে চান্দের গাড়ি উল্টে ১ জন নিহত   এই বছর বাড়ির ছাদেও থার্টিফাস্ট নাইট পালন করা যাবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   ১০ বছরে ২৫ লাখ বিএনপির নেতাকর্মী আসামী : মামলা সংখ্যা ৯০ হাজার   রাষ্ট্র এবং রাজনীতি সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয় বলেই তারা দেশ ত্যাগ করে : রানা দাশগুপ্ত   না ফেরার দেশে ব্রাজিলের হলুদ জার্সির রূপকার   দীঘিনালায় প্রধান শিক্ষক ঊষা আলো চাকমাকে মুক্তি দিয়েছে সন্ত্রাসীরা   এবারের বিসিএস আবেদনকারীর সংখ্যা মালদ্বীপ ও আইসল্যান্ডের জনসংখ্যার থেকেও বেশি!   কাল থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা শুরু   রোহিঙ্গা বিদ্রোহী (আরসার) ভয়ে রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফিরেনি: পুনর্বাসন মন্ত্রী   মিয়ানমারের ইয়াংগুনের উপকূলে শতাধিক রোহিঙ্গা আটক   নেইমারের গোলে জিতল ব্রাজিল   ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানলে নিহত ৭১, নিখোঁজ ১ হাজার   মুক্তি পেল চলচ্চিত্র ‘হাসিনা : এ ডটার'স টেল’   ৪০তম বিসিএসে রেকর্ড সংখ্যক প্রার্থীর আবেদন   নির্বাচনে গুজব ঠেকাতে প্রস্তুত রয়েছে র‌্যাব-পুলিশ   ঘূর্ণিঝড় ‘গাজা’র আঘাতে মৃত ৩০   এসিল্যান্ড নাজিম উদ্দিনসহ রাঙ্গামাটির ১০ উপজেলায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে   জনগণ আমাদের সাথে রয়েছে, বিএনপিকে অপকর্ম থেকে বিরত থাকার জন্য প্রধানমন্ত্রীর আহবান   নির্বাচন আর পেছানো হচ্ছে না : ইসি   ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নবান্ন উৎসব শুরু
প্রচ্ছদ / রাজনীতি / হত্যা মামলায় খালেদার জামিন স্থগিতই থাকলো

হত্যা মামলায় খালেদার জামিন স্থগিতই থাকলো

প্রকাশিত: ২০১৮-০৭-০২ ১৪:০৩:৩৭

অনলাইন ডেস্ক

কুমিল্লায় বাসে পেট্রোল বোমা হামলা চালিয়ে মানুষ হত্যার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে হাই কোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ।

ওই জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা লিভ টু আপিল নিষ্পত্তি করে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন নেতৃত্বাধীন চার বিচারকের আপিল বেঞ্চ সোমবার এ আদেশ দেয়।

আদেশে বলা হয়, খালেদা জিয়ার জামিন প্রশ্নে হাই কোর্ট যে রুল দিয়েছিল, চার সপ্তাহের মধ্যে তার নিষ্পত্তি করতে হবে। সে পর্যন্ত জামিনের ওপর চেম্বার আদালতের দেওয়া স্থগিতাদেশ বহাল থাকবে। এর ফলে অন্য সব মামলাতেও যদি জামিন হয়, তারপরও আগামী এক মাসে কারাবন্দি খালেদা জিয়ার মুক্ত হওয়ার কোনো সুযোগ থাকছে না।

জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাদণ্ডের রায়ের পর সাড়ে চার মাস ধরে বন্দি খালেদা জিয়া ইতোমধ্যে ওই মামলায় সর্বোচ্চ আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন। কিন্তু কুমিল্লার নাশকতার দুটিসহ কয়েকটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোয় তার মুক্তি আটকে যায়।

গত ২৮ মে হাই কোর্ট কুমিল্লার এ মামলায় জামিন মঞ্জুর করেন আদালত। কিন্তু রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনে চেম্বার আদালত ওই জামিন স্থগিত করে দেয়। পরে আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চ ওই স্থগিতাদেশ বহাল রেখে ২৪ জুন লিভ টু আপিল শুনানির তারিখ দিলে ঈদের আগে খালেদার মুক্তি আটকে যায়। এর ধারাবাহিকতায় অবকাশ ও ঈদের ছুটি শেষে গত ২৪ জুন সুপ্রিম কোর্ট খোলার পর লিভ টু আপিলের শুনানি শুরু হয়।

রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম এবং খালেদা জিয়ার পক্ষে এজে মোহাম্মদ আলী, খন্দকার মাহবুব হোসেন, মওদুদ আহমেদ, জয়নুল আবেদীন ও মাহবুব উদ্দিন খোকন এ শুনানিতে অংশ নেন।

দশম সংসদ নির্বাচনের বছরপূর্তিতে ২০১৫ সালের ৫ জানুয়ারি সমাবেশ করতে বাধা পেয়ে দলীয় কার্যালয়ে অবরুদ্ধ অবস্থায় থেকে সারাদেশে লাগাতার অবরোধ ডাকেন খালেদা জিয়া। সেই অবরোধের সঙ্গে হরতাল চলে টানা ৯০ দিন। ওই কর্মসূচিতে বহু গাড়ি পোড়ানো হয়, অগ্নিসংযোগ হয় বিভিন্ন স্থাপনায়। অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যায় শতাধিক মানুষ। তখন নাশকতার ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে অসংখ্য মামলা করে। তার মধ্যে বেশ কয়েকটিতে খালেদাকে হুকুমের আসামি করা হয়; কুমিল্লার এই মামলা তারই একটি।

২০১৫ এর ৩ ফেব্রুয়ারি রাতে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার জগমোহনপুরে কক্সবাজার থেকে ঢাকাগামী আইকন পরিবহনের একটি বাসে পেট্রোল বোমা হামলা হলে দগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় আটজনের।

চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই নুরুজ্জামান হাওলাদার পরদিন বিএনপি-জামায়াতের ৫৬ জনের নাম উল্লেখ করে, আরও ১৫ থেকে ২০ জনকে অজ্ঞাতপরিচয় আসামি দেখিয়ে মামলা করেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সেখানে হুকুমের আসামি করা হয়।

তদন্ত শেষে গতবছর আদালতে দেওয়া অভিযোগপত্রে খালেদা জিয়াসহ মোট ৭৮ জনকে আসামি করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক ফিরোজ আহমেদ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত