শিরোনাম

  ঢাবি শিক্ষার্থী প্রকট চাকমাসহ ১৩ শিক্ষার্থী পেলেন জগন্নাথ হল স্বর্ণপদক   চট্টগ্রামসহ অনেক জায়গায় ভারী বর্ষণ হতে পারে   ভিয়েতনামে বন্যায় ২০ জনের মৃত্যু , ১ লাখ ১০ হাজার হেক্টর জমির ফসল বিনষ্ট   দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলা   ছাত্রলীগকে প্রধানমন্ত্রী সতর্ক করেছেন: কাদের   থানকুনি পাতার জাদুকরি উপকারিতা   চট্টগ্রাম কর্ণফুলীতে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ, গ্রেফতার ৩   পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠা ও উন্নয়নে সেনাবাহিনীর ভূমিকা অপরিসীম : প্রধানমন্ত্রী   চিকিৎসা খাতে নতুন আবিষ্কার রঙিন ও থ্রি-ডি এক্স-রে   গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেঁদেছেন প্রধানমন্ত্রী   না ফেরার দেশে রাজীব মীর   নানিয়াচর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান প্রীতিময় চাকমাকে অপহরণ   ছেলেদের চেয়ে এবারও এগিয়ে মেয়েরা   চট্টগ্রাম বোর্ডের পাশের হার ৬২.৭৩ %   যারা ফেল করেছে তাদের বকাঝকা করবেন না : প্রধানমন্ত্রী   এইচএসসি তে পাসের ধস নেমেছে এবার   এইচএসসি ও সমমানে পাসের হার এবার ৬৬.৬৪   হাসপাতাল ছাড়ার পর এবার থাই কিশোররা সবাই শ্রামণ হয়ে প্রবজ্যা গ্রহণ করবে   থাইল্যান্ডের গুহায় আটকা পড়া কিশোররা হাসপাতাল ছেড়েছে   ৮ দল নিয়ে বাম গণতান্ত্রিক জোটের আত্মপ্রকাশ
প্রচ্ছদ / রাজনীতি / শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নের জন্য সন্তু লারমার সঙ্গে বৈঠক করবেন কাদের

শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নের জন্য সন্তু লারমার সঙ্গে বৈঠক করবেন কাদের

প্রকাশিত: ২০১৭-১২-০৪ ২০:৩৯:৫৩

নিউজ ডেস্ক

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠায় ৭২টি চুক্তির মধ্যে অনেকগুলো চুক্তি ইতিমধ্যে বাস্তবায়ন হয়েছে। যেগুলো এখনো বাস্তবায়ন হয়নি, সেগুলো বাস্তবায়নের উপায় বের করার জন্য জনসংহতি সমিতির চেয়ারম্যান সন্তু লারমার সঙ্গে বৈঠক হবে।

আজ সোমবার সকালে কক্সবাজারের একটি হোটেলে রোহিঙ্গাদের জন্য দেওয়া বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠনের অনুদানের টাকা গ্রহণ শেষে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, পার্বত্য চুক্তির আগে ও পরের অবস্থা পর্যালোচনা করলে পাহাড়ে উন্নয়নের দৃশ্য সহজে বোঝা যাবে। এখন পাহাড়ে রাস্তাঘাট, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বিদ্যুৎসহ সবকিছুর ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রামের এখন একমাত্র সমস্যা হচ্ছে ভূমি। এই সমস্যা সমাধানের জন্য সরকারের আন্তরিকতার অভাব নেই।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজ সকালে জনসংহতি সমিতির চেয়ারম্যান সন্তু লারমার সঙ্গে মোবাইল ফোনে তিনি কথা বলেছেন। শিগগির তাঁরা একসঙ্গে বসে বৈঠক করবেন। যেসব চুক্তি বাস্তবায়িত হয়নি, সেগুলো কীভাবে দ্রুত বাস্তবায়ন করা যায়, সে বিষয়ে তাঁরা আলোচনা করবেন। এরপর সন্তু লারমার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথা হবে।

বিএনপির অপপ্রচার প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, এই মুহূর্তে বিএনপির কথামালার চাতুরী ছাড়া আর কোনো পুঁজি নেই। যতই দিন যাচ্ছে, ততই তারা মিথ্যাচার ও স্ট্যান্ডবাজি করে বেড়াচ্ছে। আগামী নির্বাচনে না এলে তাদের অবস্থা হবে মুসলিম লীগের মতো।

মন্ত্রী বলেন, মিয়ানমারের সঙ্গে যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন হলেও সব রোহিঙ্গাকে এক দিনে ফেরত পাঠানো সম্ভব নয়। এটি একটি দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়া। তারপরও রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে সরকার ব্যর্থ হবে না। শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু যেমন নিজস্ব অর্থায়নে নির্মাণ করছেন, তেমনি সাহসের সঙ্গেও রোহিঙ্গা সংকট মোকাবিলা করছেন।

সূত্রঃ প্রথম আলো।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত