শিরোনাম

  ভুটানকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরা   খাগড়াছড়িতে সেটেলার কর্তৃক পাহাড়ী নারীকে ধর্ষণ চেষ্ঠা   গুলো-গুলি || আলোময় চাকমা   বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা   মহালছড়িতে আবার ৩ গ্রামবাসীকে অপহরণ করেছে সন্ত্রাসীরা   আজ খালেদা জিয়ার জন্মদিন!   বাঙালির শোকের দিন আজ   বঙ্গবন্ধুর শোক দিবসে ২১০টি গরু জবাই দিয়ে কাঙালি ভোজ আয়োজন !   পিসিপি ২৬ তম কাউন্সিল ও ছাত্র সম্মেলন সম্পন্ন , নিপন ত্রিপুরাকে সভাপতি ও অমর শান্তি চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক   পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়ন : অর্থনৈতিক না রাজনৈতিক সমস্যা ?   খাগড়াছড়িতে ৪ গ্রামবাসীকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে   শান্তি চুক্তির পর পাহাড়ে যে উন্নয়ন হয়েছে তা টেলিটক থেকে মেসেজ করে আমরা পৌঁছে দেব : তারানা হালিম   এবার বিশ্বের মধ্যে খারাপ শহরের তালিকায় ২য় স্থানের নাম লিখেছে ঢাকা , বাংলাদেশ   জিয়াউর রহমানই পাহাড়ে সমতল থেকে মানুষ নিয়ে অশান্তির বীজ বপন করেছিল   সরকারি চাকরিজীবীরা বেতন-বোনাস পাচ্ছেন বৃহস্পতিবার   নেপালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে মারিয়া মান্দার দল বাংলাদেশ   দৈনিক সমকালের সম্পাদক গোলাম সারওয়ার আর নেই   শহিদুলের মুক্তির দাবি জানিয়েছেন নোবেলজয়ী স্টিগলিজসহ ১৩ বরেণ্য ব্যক্তিত্ব   খাগড়াছড়িতে ৪ গ্রামবাসীকে অপহরণ করেছে সন্ত্রাসীরা   রিমান্ড শেষে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন অভিনেত্রী নওশাবা
প্রচ্ছদ / জাতীয় / সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হত্যা প্রমাণ হলে মৃত্যুদণ্ড

সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হত্যা প্রমাণ হলে মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত: ২০১৮-০৮-০৭ ১০:৪০:২৭

অনলাইন ডেস্ক

সড়কে শৃঙ্খলা আনতে ‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’র চূড়ান্ত খসড়ার অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। পরে আইনটির বিষয়ে গণমাধ্যমে বিস্তারিত ব্রিফ করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

তিনি জানান, আইনে বেপরোয়া বা অবহেলা করে গাড়ি চালানোর কারণে দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত বা মৃত্যু হলে সর্বোচ্চ ৫ বছর কারাদণ্ড বা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ড দেয়া হবে।

তবে তদন্তে যদি দেখা যায়, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে চালক বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন, তাহলে দণ্ডবিধি ৩০২ অনুযায়ী শাস্তি দেয়া হবে। অর্থাৎ সাজা হবে মৃত্যুদণ্ড। তবে এটা তদন্ত সাপেক্ষে এবং তথ্যের ওপর ভিত্তি করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ধারা নির্ধারণ করবে।

এ আইনে আগে কারাদণ্ড ছিল ৭ বছর, সেটা পরে করা হয় তিন বছর। কিন্তু, বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা ও স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে কথা বলে তা ৫ বছর করা হয়েছে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

তিনি আরও জানান, তবে অর্থদণ্ডের বিষয়টি পরিস্থিতি বুঝে নির্ধারণের সুযোগ রাখা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, দুর্ঘটনার মাধ্যমে যদি ইচ্ছাকৃতভাবে নরহত্যা হয়, তবে দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় শাস্তি দেয়া যাবে। আর এর শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। হত্যা না হলে ৩০৪ ধারা প্রযোজ্য হবে। এক্ষেত্রে শাস্তি হবে যাবজ্জীবন। বেপরোয়া গাড়ি চালানোর কারণে দুর্ঘটনা হলে ৩০৪-বি ধারা অনুযায়ী ৩ বছরের কারাদণ্ড দেয়া যাবে।

এছাড়া যদি কেউ ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালান, তবে সর্বোচ্চ ৬ মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ড দেয়া যাবে। কেউ এই অপরাধ করলে তাকে বিনা পরোয়ানায় গ্রেফতার করা যাবে। এক্ষেত্রে বর্তমানে ৩ মাসের কারাদণ্ড বা ৫ হাজার টাকা জরিমানা রয়েছে।

শফিউল আলম বলেন, কেউ যদি রেজিস্ট্রেশন ছাড়া গাড়ি চালান, তাকে ৬ মাসের জেল ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ড দেয়া যাবে।

তিনি বলেন, ফিটনেস না থাকা মটরযান চালালে বর্তমানে শাস্তি রয়েছে সর্বোচ্চ ৬ মাসের কারাদণ্ড বা ২৫ হাজার টাকা জরিমানা। সেখানে এখন শাস্তি সর্বোচ্চ ১ বছরের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকা জরিমানা। তবে এ শাস্তি পাবে মূলত গাড়ির মালিক।

গাড়ির চেচিচ বা আকার-আকৃতির পরিবর্তন করলে বতমান আইনে আছে ২ বছর কারাদণ্ড এবং ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড। কিন্তু, খসড়া আইনে এটা বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩ বছরের কারাদণ্ড এবং ৩ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ড। তবে কারাদণ্ড কখনো এক বছরের নিচে দেয়া যাবে না।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত