শিরোনাম

  ২৪ ডিসেম্বর থেকে পার্বত্য এলাকাসহ মাঠপর্যায়ে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন করা হবে   গ্রাম আদালতের একটি সফল গল্প   টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগের পর চার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব বণ্টন   আগামী ২৪ ডিসেম্বর জেএসসি ও প্রাথমিক সমাপনীর ফল প্রকাশ   নির্বাচনকালীন ইউএনও-ডিসির স্বাক্ষরে শিক্ষকদের বেতন-ভাতা : শিক্ষা মন্ত্রণালয়   খালেদার মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের বিভক্ত আদেশ   'তিন পার্বত্য জেলায় ৩৮ টি ভোটকেন্দ্রে হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হবে'   সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ন নির্বাচন নিশ্চিত করার আহ্বান ইউরোপীয় দেশগুলোর   তরুণ ও নারী ভোটাররাই আওয়ামী লীগের বিজয়ের প্রধান হাতিয়ারঃ কাদের   গত ৫ বছরে জেএসএস এমপি উন্নয়ন করতে পারেনি, যা করেছে আওয়ামীলীগ করেছে : দিপংকর তালুকদার   এখন থেকে সরকারি চাকরিতে যোগ দেওয়ার আগে মাদক পরীক্ষা বাধ্যতামূলক   'বান্দরবানে বিদেশি পর্যটকদের ভ্রমণে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই'   'নির্বাচনী প্রচারণায় রঙিন পোস্টার বা ব্যানার ব্যবহার করা যাবে না'   ৫৮টি নিউজ পোর্টাল খুলে দিয়েছে বিটিআরসি   বুধবার থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন প্রধানমন্ত্রী   বিএনপি ক্ষমতায় এলে শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন করার চেষ্ঠা করবো: মনি স্বপন দেওয়ান   তিন পাহাড়ে নৌকা নিয়ে মাঠে দৌড়াবেন যারা   আগামীকাল খালেদা জিয়ার অগ্নিপরীক্ষা   হিরোকে জিরো বানানো এত সহজ নয়, সফল হিরো আলমের চ্যালেঞ্জ   খাগড়াছড়িতে বনের রাজা পেয়েছেন ইউপিডিএফের প্রার্থী নতুন কুমার চাকমা
প্রচ্ছদ / জাতীয় / চাঁদাবাজি নির্মূল করতে পার্বত্য অঞ্চলের জেলা প্রশাসকদের কড়া নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

চাঁদাবাজি নির্মূল করতে পার্বত্য অঞ্চলের জেলা প্রশাসকদের কড়া নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ২০১৮-০৭-২৪ ১৬:১১:০৪

অনলাইন ডেস্ক

চাঁদাবাজি, টেন্ডার দখল, শক্তি প্রদর্শন, সন্ত্রাসবাদ ও মাদক নির্মূলসহ জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) ২৩ দফা নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ডিসিদের তিনদিনের সম্মেলনের উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, ‘কে কোন দলের সেটা আপনাদের দেখার দরকার নেই। অন্যায়কারী যেই হোক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন।’

তিনি বলেন, পার্বত্য জেলাসমূহের ভূ-প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য, বনাঞ্চল, নদী-জলাশয়, প্রাণিসম্পদ এবং গিরিশৃঙ্গগুলির সৌন্দর্য সংরক্ষণ করতে হবে। এসব এলাকায় অবৈধ চাঁদাবাজি নির্মূল করতে জেলা প্রশাসকে কাজ করতে হবে। পাশাপাশি পর্যটনশিল্প, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প এবং কুটিরশিল্পের বিকাশে সর্বাত্মক সহযোগিতা দিতে হবে।

এই দায়িত্ব পালনে কেউ বাঁধা দিলে প্রধানমন্ত্রী বা তার কার্যালয়ের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করার নির্দেশনা দেন শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘আমার সাথে অথবা আমার কার্যালয়ের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করতে আপনাদের অনুমতি দিচ্ছি। আমরা ওই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘তার সরকার চাঁদাবাজি, টেন্ডার দখল, শক্তি প্রদর্শন, সন্ত্রাসবাদ ও মাদকের মতো সমাজের জন্য হুমকি এমন খারাপ কাজের মূল উৎপাটন করতে চায়। আমরা জনগণের শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চাই। ’

সারাদেশে সরকারের উন্নয়ন কর্মসূচির দেখভাল করতে ডিসিদের নির্দেশনা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বিপুল পরিমাণ অর্থ ব্যয় করে উন্নয়ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। আপনাদের কর্মসূচিগুলো দেখাশোনা করতে হবে। এগুলো সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে কিনা সেদিকে নজর রাখুন। তাহলে দেশের জনগণ উপকৃত হবে।’

জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য ডিসিদেরকে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আশা করছি এ বিষয়ে আপনাদের সৃজনশীলতা এবং প্রতিভা কাজে লাগাবেন।

জনগণের কল্যাণ নিশ্চিত করতে এবং উন্নয়ন কর্মসূচিগুলোর বাস্তবায়নে আরো সক্রিয় হওয়ার জন্য ডিসিদের ২৩ দফা নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকারি সেবা গ্রহণের সময় সাধারণ মানুষদের যাতে হয়রানি ও বঞ্চিত করা না হয় সে ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করতে ডিসিদের প্রতি আহ্বান জানান শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের চলমান অভিযান দেশের তরুণ সমাজকে রক্ষা করবে।

জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা দূর করে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে শান্তি, শৃঙ্খলা ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য ডিসিদের আন্তরিকতার সাথে কাজ করার নির্দেশ দেন তিনি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত