শিরোনাম

  বিএনপিকে আবারো সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যায়িত করেছে কানাডার আদালত   ৮০ বছর বয়সে প্রথম ভোট দিলেন   সীতাকুণ্ডে দুই আদিবাসী কিশোরীর খুনিদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি   গবেষণার কাজে ব্যবহার উদ্দেশ্যে মরণোত্তর দেহদান করলেন তসলিমা নাসরিন   প্রাথমিকে এক লাখ ৬৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ   আর্জেন্টিনার চূড়ান্ত দল ঘোষণা   মাদকবিরোধী অভিযানে বন্দুকযুদ্ধে নিহত আরো ১১   খাগড়াছড়িতে গুলি করে ১ জনকে হত্যা, দু পক্ষের মধ্যে গুলি বিনিময়   দুই আদিবাসী ত্রিপুরা কিশোরী হত্যাকান্ডের ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান চাকমা রাণী   আদিবাসীদের ঐক্যবদ্ধ প্রতিবাদের মুখে আবারো ব্যর্থ হয়েছে সেটেলারদের দখলবাজি প্রচেষ্টা   ত্রিপুরা রাজ্যে ভয়াবহ বন্যা, পানির নিচে ৩ হাজার বাড়ি   বান্দরবানে অবৈধভাবে পাহাড় কাটার সময় মাটি চাপায় ৫ জন নিহত   অপরাধীদেরকে আইনের আওতায় এনে বিচার করা হোক : সুলতানা কামাল   কক্ষপথে পৌঁছাল বাংলাদেশ   আজ ২০ মে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের ২৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী   প্রিন্স হ্যারির রাজকীয় বিয়ের ছবি   সীতাকুন্ডে দুই আদিবাসী কন্যা শিশু ধর্ষণ ও হত্যার বিচার এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন   দুই আদিবাসী কিশোরী হত্যাকারী আবুল হোসেনের ফাঁসির দাবি   প্রেমের প্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে আবুল হোসেন দুই আদিবাসী কিশোরীকে হত্যা করেছে   সীতাকুণ্ডে ২ আদিবাসীকে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যায় মামলা
প্রচ্ছদ / জাতীয় / সেনাবাহিনীর সঙ্গে আমার পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে, বলতে বলতে কেঁদে ফেললেন প্রধানমন্ত্রী

সেনাবাহিনীর সঙ্গে আমার পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে, বলতে বলতে কেঁদে ফেললেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ২০১৮-০৫-১৩ ১২:২০:৩৮

প্রধানমন্ত্রীর ফাইল ছবি।

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সঙ্গে পারিবারিক সম্পর্কের কথা তুলে ধরতে গিয়ে কাঁদলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার (১৩ মে) ঢাকা সেনানিবাসে ২০টি সমাপ্ত প্রকল্পসহ ২৭টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন শেষে বক্তব্যে নিজ পরিবারের সদস্যদের সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়ার বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘সেনাবাহিনীর সঙ্গে আমার পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে। আমার দুই ভাই সেনাবাহিনীতে চাকরি করতেন। আমার ১০ বছরের ছোট ভাই, বড় হয়ে সে কী করতে চায়- এ প্রশ্নের জবাবে বলতো, সেনাবাহিনীতে চাকরি করবে।’

শেখ কামাল ও শেখ জামালের সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়া ও স্বাধীনতা যুদ্ধে যোগাদানের বিষয় তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার ছোট ভাইটি মাত্র ১০ বছর বয়সের, তাকে যদি জিজ্ঞেস করা হতো বড় হয়ে কী হবে? একটিই কথা ছিল, সেও সেনাবাহিনীতে যোগদান করবে। দুর্ভাগ্য ১৫ আগস্ট তারা সকলেই শাহাদাতবরণ করেছেন।

তিনি বলেন, ‘সেনা সদস্যদের জন্য দুপুরে রুটির পরিবর্তে ভাতের ব্যবস্থা করে দিয়েছি। ‘৯৬ সালে সরকার গঠনের পর সেনাবাহিনীর কাছে তাদের দাবি-দাওয়া সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলাম। তারা বলেছিলেন, আমাদের দুপুরে রুটি দেওয়া হয়, আমরা ভাত খেতে চাই। ওই সময় দেশে খাদ্য ঘাটতি ছিল। আমি কথা দিয়েছিলাম তাদের জন্য ভাতের ব্যবস্থা না করা পর্যন্ত আমি ভাত খাবো না। আমি ভাত খাইনি। তাদের জন্য ভাতের ব্যবস্থা করার পর আমি তাদের সঙ্গে বসে দুপুরে ভাত খেয়েছি। ’

আপনার মন্তব্য

আলোচিত