শিরোনাম

  ২৪ ডিসেম্বর থেকে পার্বত্য এলাকাসহ মাঠপর্যায়ে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন করা হবে   গ্রাম আদালতের একটি সফল গল্প   টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগের পর চার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব বণ্টন   আগামী ২৪ ডিসেম্বর জেএসসি ও প্রাথমিক সমাপনীর ফল প্রকাশ   নির্বাচনকালীন ইউএনও-ডিসির স্বাক্ষরে শিক্ষকদের বেতন-ভাতা : শিক্ষা মন্ত্রণালয়   খালেদার মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের বিভক্ত আদেশ   'তিন পার্বত্য জেলায় ৩৮ টি ভোটকেন্দ্রে হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হবে'   সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ন নির্বাচন নিশ্চিত করার আহ্বান ইউরোপীয় দেশগুলোর   তরুণ ও নারী ভোটাররাই আওয়ামী লীগের বিজয়ের প্রধান হাতিয়ারঃ কাদের   গত ৫ বছরে জেএসএস এমপি উন্নয়ন করতে পারেনি, যা করেছে আওয়ামীলীগ করেছে : দিপংকর তালুকদার   এখন থেকে সরকারি চাকরিতে যোগ দেওয়ার আগে মাদক পরীক্ষা বাধ্যতামূলক   'বান্দরবানে বিদেশি পর্যটকদের ভ্রমণে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই'   'নির্বাচনী প্রচারণায় রঙিন পোস্টার বা ব্যানার ব্যবহার করা যাবে না'   ৫৮টি নিউজ পোর্টাল খুলে দিয়েছে বিটিআরসি   বুধবার থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন প্রধানমন্ত্রী   বিএনপি ক্ষমতায় এলে শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন করার চেষ্ঠা করবো: মনি স্বপন দেওয়ান   তিন পাহাড়ে নৌকা নিয়ে মাঠে দৌড়াবেন যারা   আগামীকাল খালেদা জিয়ার অগ্নিপরীক্ষা   হিরোকে জিরো বানানো এত সহজ নয়, সফল হিরো আলমের চ্যালেঞ্জ   খাগড়াছড়িতে বনের রাজা পেয়েছেন ইউপিডিএফের প্রার্থী নতুন কুমার চাকমা
প্রচ্ছদ / জাতীয় / ‘রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় সংখ্যালঘুদের উপাসনালয়, প্রতিমা ভাঙচুর হয়’

‘রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় সংখ্যালঘুদের উপাসনালয়, প্রতিমা ভাঙচুর হয়’

প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০৬ ১৬:৪৪:৪২

অনলাইন ডেস্ক

রাজনৈতিক ব্যক্তিদের ছত্রছায়ায় সংখ্যালঘুদের উপাসনালয়, প্রতিমা ভাঙচুর ও ভীতি সৃষ্টি করা হয় বলে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ড. প্রভাস চন্দ্র রায়।

শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) এক্সপেরিমেন্টাল হলে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট আয়োজিত ‘১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশে বসবাসরত ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের চিত্র প্রকাশ’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

প্রভাস চন্দ্র রায় বলেন, ‘দেশব্যাপী হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা, প্রতিমা ভাঙচুরসহ, হত্যা, ধর্ষণ এবং নানা ধরনের নির্যাতনের মূল কারণ ভূমিদখল। আমরা এটাকে সাম্প্রদায়িক হামলা বলব না, সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হওয়ার পর স্বার্থ উদ্ধারের জন্য রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় প্রভাবশালীরা এমন ঘটনা ঘটাচ্ছে। এসব ঘটনার বেশিরভাগই সাম্প্রদায়িক নয়, বরং সম্পদ কুক্ষিগত করাই মূল লক্ষ্য থাকে। এখন কিছু প্রভাবশালী এবং রাজনৈতিক ব্যক্তির ছত্রছায়ায় সংখ্যালঘুদের মন্দির ও প্রতিমা ভাঙচুর করে ভীতি সৃষ্টি করা হয় যাতে তারা তাদরে বাড়ি-ঘর ছেড়ে চলে যায়। হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন যদি ভয়ে বাড়ি-ঘর ছেড়ে চলে যায় তাহলে তাদের ঘর-বাড়ি এবং ফসলের জমি দখল করতে সুবিধা হবে। তাই তাদেরকে ভয় দেখানো হয়।’

ইসলামি কোনো দল বা অন্য কোনো রাজনৈতিক শক্তি এসব ঘটনা ঘটাচ্ছে কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে প্রভাস চন্দ্র বলেন, আমরা কোনো রাজনৈতিক দলকে দায়ী করব না। তবে ভবিষ্যাতে যাতে এসব ঘটনা আরো কমে সেটা আশা করব। কারণ, সরকারের আন্তরিকতায় এসব ঘটনা কমতে শুরু করেছে। গত ২০১৬ সালের তুলনায় ২০১৭ সালের অনেক ঘটনাই হ্রাস পেয়েছে। ভবিষ্যতে আরো যাতে কমে, সেটাই কামনা করব সরকারের কাছে।

ড. প্রভাস চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের সভাপতি প্রদীপ কান্তি দে, নির্বাহী মহাসচিব ও মুখপাত্র পলাশ কান্তি দে, সহ-সভাপতি সুধাংশু চন্দ্র বিশ্বাস, অখিল মন্ডল, প্রভাস চন্দ্র মন্ডল, স্বরূপ দত্ত, রাকেশ রায়, ছাত্র মহাজোটের সাধারণ সম্পাদক পার্থ সারথি রায় প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত