শিরোনাম

  ২৪ ডিসেম্বর থেকে পার্বত্য এলাকাসহ মাঠপর্যায়ে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন করা হবে   গ্রাম আদালতের একটি সফল গল্প   টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগের পর চার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব বণ্টন   আগামী ২৪ ডিসেম্বর জেএসসি ও প্রাথমিক সমাপনীর ফল প্রকাশ   নির্বাচনকালীন ইউএনও-ডিসির স্বাক্ষরে শিক্ষকদের বেতন-ভাতা : শিক্ষা মন্ত্রণালয়   খালেদার মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের বিভক্ত আদেশ   'তিন পার্বত্য জেলায় ৩৮ টি ভোটকেন্দ্রে হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হবে'   সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ন নির্বাচন নিশ্চিত করার আহ্বান ইউরোপীয় দেশগুলোর   তরুণ ও নারী ভোটাররাই আওয়ামী লীগের বিজয়ের প্রধান হাতিয়ারঃ কাদের   গত ৫ বছরে জেএসএস এমপি উন্নয়ন করতে পারেনি, যা করেছে আওয়ামীলীগ করেছে : দিপংকর তালুকদার   এখন থেকে সরকারি চাকরিতে যোগ দেওয়ার আগে মাদক পরীক্ষা বাধ্যতামূলক   'বান্দরবানে বিদেশি পর্যটকদের ভ্রমণে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই'   'নির্বাচনী প্রচারণায় রঙিন পোস্টার বা ব্যানার ব্যবহার করা যাবে না'   ৫৮টি নিউজ পোর্টাল খুলে দিয়েছে বিটিআরসি   বুধবার থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন প্রধানমন্ত্রী   বিএনপি ক্ষমতায় এলে শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন করার চেষ্ঠা করবো: মনি স্বপন দেওয়ান   তিন পাহাড়ে নৌকা নিয়ে মাঠে দৌড়াবেন যারা   আগামীকাল খালেদা জিয়ার অগ্নিপরীক্ষা   হিরোকে জিরো বানানো এত সহজ নয়, সফল হিরো আলমের চ্যালেঞ্জ   খাগড়াছড়িতে বনের রাজা পেয়েছেন ইউপিডিএফের প্রার্থী নতুন কুমার চাকমা
প্রচ্ছদ / জাতীয় / মাদক সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় পদক অর্জন করলেন সন্তোষ কুমার চাকমা

মাদক সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় পদক অর্জন করলেন সন্তোষ কুমার চাকমা

প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০১ ১৫:১৬:০৪

অনলাইন ডেস্ক

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) চট্টগ্রাম মেট্রোর পুলিশ পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা ২য় বারের মতো আবারো পিপিএম পদক অর্জন করেছেন। ‘জঙ্গি ও মাদক প্রতিকার, পুলিশ সপ্তাহের অঙ্গীকার’ স্লোগান নিয়ে আগামী ৮ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে পুলিশ সপ্তাহ।

এ আয়োজনে সাহসিকতা ও সেবার স্বীকৃতি হিসেবে এ পদক অর্জন করেন তিনি। পুলিশ সপ্তাহের উদ্বোধনী দিন ৮ জানুয়ারি সকালে আনুষ্ঠানিকভাবে রাজারবাগ পুলিশ লাইন মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশের প্যারেডে সালাম গ্রহণ করবেন ও পদক তুলে দেবেন। চারটি ক্যাটাগরিতে এবার সাহসিকতার জন্য ৩০ জনকে বিপিএম, সেবার স্বীকৃতি হিসেবে ২৮ জনকে বিপিএম, সাহসিকতার জন্য ৭১ জনকে প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম) ও সেবার স্বীকৃতি হিসেবে পিপিএম পাবেন ৫৩ জন।

প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুন্যালের তিন পুলিশ সদস্য আছেন এ তালিকায়। পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের প্রধানদের অনেকের নামও আছে। জানা যায়, ক্লুবিহীন, তথ্যহীন চাঞ্চল্যকর মামলা তদন্তে সাফল্যের নেপথ্যে ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন চৌকস এই পুলিশ অফিসার সন্তোষ কুমার চাকমা। যেকোন অপরাধের রহস্যের কিনারায় সহজে পৌঁছাতে পারেন পিবিআই এর প্রাণ পরিদর্শক সন্তোষ। ২০১৫ সালে পিপিএম (সেবা) পদক অর্জন করেন তিনি।

২০১৪ ও ২০১৭ সালে পেয়েছেন আইজিপি র‌্যাঙ্ক ব্যাজ। সুত্র জানায়, ২০০৫ সালে পুলিশ বাহিনীতে উপপরিদর্শক (এসআই) পদে যোগ দেন সন্তোষ। পাঁচ বছর কর্মরত ছিলেন নগর গোয়েন্দা পুলিশে। এর আগে কর্ণফুলী ও কোতোয়ালি থানা এবং সিআইডিতে কর্মরত ছিলেন সন্তোষ। ২০১৬ সালের ২০ জুলাই পদোন্নতি পান পরিদর্শক পদে।

এরপর ঢাকায় সিআইডিতে এক মাস কর্মরত থেকে বদলি হন চট্টগ্রাম পিবিআইয়ে। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর থেকে পিবিআইয়ের চট্টগ্রাম মেট্রো ইউনিটে কর্মরত আছেন সন্তোষ। ২০১১ ও ২০১৩ সালে বোমা নিষ্ক্রিয়করণ ও সাইবার অপরাধ নিয়ন্ত্রণের উপর যুক্তরাষ্ট্রে প্রশিক্ষণ নেন সন্তোষ। চলতি বছরের মার্চে ভারতের সিবিআই একাডেমিতে আর্থিক অপরাধ-সংক্রান্ত বিষয়েও প্রশিক্ষণ নেন। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি বিভাগে পড়াশোনা শেষ করেন রাঙামাটির সন্তান সন্তোষ।

উল্লেখ্য, ডাকাতি, ছিনতাই কিংবা চাঞ্চল্যকর খুনের ঘটনা- মাস যায়, বছর যায় ক্লু পায় না পুলিশ। সূত্রবিহীন মামলার ‘রহস্য’ উদঘাটনে কপালে ভাঁজ পড়ে যায় তদন্ত কর্মকর্তার।

সূত্রবিহীন মামলার ‘রহস্য’ উদঘাটনে যখন কপালে ভাঁজ পড়ে যায় তদন্ত কর্মকর্তার তখন আছেন এমন ‘একজন’ যিনি এসব মামলার রহস্যের জট খোলায় পটু। পুলিশ কিংবা গোয়েন্দা বিপাকে পড়লেই ডাক পড়ে তার। অতি কৌশলী অপরাধীও তার চোখ ফাঁকি দিতে পারে না। তিনি যেন ‘জাদুর কাঠি’।

তিনি হলেন সন্তোষ কুমার চাকমা। পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) চট্টগ্রাম মেট্রো শাখার পরিদর্শক। চাঞ্চল্যকর মামলার তদন্তের দায়িত্ব পাওয়ার পর দ্রুততম সময়ে আসামি গ্রেফতারে সক্ষম এই সন্তোষকে ভাবা হচ্ছে পিবিআই’র ‘প্রাণভোমরা’। তার হাতেই ধরা পড়েছে দুর্ধর্ষ জঙ্গি, খুনি, চোর, ডাকাত, ছিনতাইকারী।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত