শিরোনাম

  ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর জন্য মাতৃভাষায় পুস্তক প্রকাশনার বিধান রেখে খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা   সরকারী চাকরিতে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য কোটা না হলেও সমস্যা হবে না   রুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু   দুই আদিবাসী কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্তদের সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি   দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি ও ভারী বর্ষণ হতে পারে   আদিবাসী মানবাধিকার সুরক্ষাকর্মীদের সম্মেলন ২০১৮ উদযাপন   ব্লগার বাচ্চু হত্যার সঙ্গে ‘জড়িত’ ২ জঙ্গি নিহত   জুমের বাম্পার ফলনে রাঙ্গামাটির চাষিদের মুখে হাসি   সরকারি চাকরিতে আদিবাসী কোটা বহাল দাবি জানাল আদিবাসীরা   আয়ারল্যান্ড প্রবাসী বাংলাদেশের এক মন্ত্রী দ্বারা হেনস্ত হওয়াতে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নিন্দা   শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পেয়েছে   মিয়ানমারে রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত   শহীদ আলফ্রেড সরেন হত্যার ১৮ বছর: হত্যাকারীদের দ্রুত বিচারের দাবি জাতীয় আদিবাসী পরিষদের   ভারতের কাছে ১-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা   সরকারী চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা ছাড়া সব কোটা বাতিল হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী   জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান মারা গেছেন   ঈদের ছুটি কাটানো হলোনা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার নিরীহ ধীরাজ চাকমার   খাগড়াছড়িতে পৃথক ঘটনার জন্য জেএসএস(সংস্কারবাদী) ও নব্য মুখোশ বাহিনীকে দায়ী করেছে : ইউপিডিএফ   নানিয়ারচর থেকে খাগড়াছড়ি   খাগড়াছড়িতে ৬ জনকে গুলি করে হত্যা !
প্রচ্ছদ / জাতীয় / ছাত্র জীবনে যে সময়টা সৎব্যবহার করবে, সে জীবনে ভালো কিছু করতে পারবেঃউষাতন তালুকদার

ছাত্র জীবনে যে সময়টা সৎব্যবহার করবে, সে জীবনে ভালো কিছু করতে পারবেঃউষাতন তালুকদার

প্রকাশিত: ২০১৭-১০-১৪ ২২:১১:৫৬

   আপডেট: ২০১৭-১০-১৭ ০৯:৫১:৫৬

চট্টগ্রাম

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সহসভাপতি ও ২৯৯ পার্বত্য রাঙ্গামাটি আসনের সাংসদ(এমপি) উষাতন তালুকদার ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে করে বলেছেন মানব জীবন খুব অল্প সময়ের মধ্যে শেষ হয়। এ বিশ্ববিদ্যালয় তথা ছাত্র জীবনটাও ছোট্ট জীবনের অংশ। এ ছাত্র জীবনে যে সময়টা সৎব্যবহার করবে, সে জীবনে ভালো কিছু করতে পারবে।

গত ১৩ অক্টোবর২০১৭ তারিখে "জাতীয় মুক্তি সংগ্রামে আত্নকেন্দ্রীকতা নয়, আত্নত্যাগই হোক ছাত্র সমাজের দৃপ্ত অঙ্গীকার" এ স্লোগানকে সামনে রেখে পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্যোগে "নবীন বরণ ও প্রবীন বিদায়-২০১৭" চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অডিটোরিয়ামে এইসব কথা বলেন।

 

তিনি আরো বলেন, ছাত্র জীবন শেষ হয়ে গেলেও বাস্তবতার নিরিখে তোমাদের পদক্ষেপ নিতে হবে। এইসময় তিনি বর্তমান বিশ্বের চলমান পরিস্থিতি তুলে ধরেন। বাংলাদেশে জঙ্গীবাদ ও অগনতান্ত্রিক শক্তি মাথা সাড়া দিয়ে উঠেছে। যেটা পার্বত্য চট্টগ্রামের বেলায় বেশি প্রযোজ্য। গত ১৩ অক্টোবরে রাংগামাটিতে অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া হিল উইমেন্স ফেডারেশনের ৯ম কেন্দ্রীয় কাউন্সিলে সেনাবাহিনী ও পুলিশের বাধা দেওয়ার ঘটনার কথা উল্লেখ করে বলেন, একটা গনতান্ত্রিক দেশে মিটিং, মিছিল, সমাবেশ, সম্মেলন করার প্রত্যেকের অধিকার রয়েছে


এখানে আমাদের গনতান্ত্রিক অধিকারকে খর্ব করে দেওয়া হয়েছে। একটা স্বাধীন দেশে এমন অগনতান্ত্রিক আচরন কারোর জন্য সুফল বয়ে আনবেনা। পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির ২০ বছরের মধ্যে চুক্তি বাস্তবায়নের আন্দোলনে পিসিজেএসএস কখনো অসহযোগিতা ও সরকারের ক্ষতি হয় এমন পদক্ষেপ গ্রহন করেনি। কিন্তু সরকার চুক্তি বাস্তবায়নে আন্তরিক নয় বলে দীর্ঘ ২০ বছরেও সরকার চুক্তি বাস্তবায়ন করছেনা। উল্টো চুক্তিবিরোধী নানা কাজ ভূমি বেদখল থেকে শুরু করে পার্বত্য চট্টগ্রামে সাম্প্রদায়িক হামলা প্রতিনিয়ত চলছে সরকারের প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ মদদে। ভিবিন্ন দেশী-বিদেশী কোম্পানীর নামে লীজ দিয়ে, সেনা ক্যাম্প সম্প্রসারনের নামে, তথাকথিত উন্নয়নের নামে, বনায়নের নামে, পর্যটন শিল্প সম্প্রসারনের নামে ভূমি বেদখল হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

উপস্থিত জুম্ম ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতি তিনি বলেন, আপনাদের নিজেদের শেকড় জুম। আপনাদের পূর্ব পুরুষরা জুম চাষ করেছে যুগে যুগে। সেজন্য আপনাদের জুম পাহাড়ে ফিরে যেতে হবে। শুধু মাত্র পার্বত্য চট্টগ্রাম নয়, সারা বাংলাদেশ তথা পৃথিবীর প্রতি একজন ছাত্র হিসেবে, একজন মানুষ হিসেবে আপনাদের দায়িত্ব রয়েছে। তিনি আরো বলেন, আমরা ক্ষুদ্র স্বার্থের জন্য নিজেদের সংকীর্ণটাকে প্রকাশ করতে পারিনা।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি জুয়েল চাকমা ,পালিবিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. জিনবোধি ভিক্ষু, আধুনিক ভাষা ও ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক জেসী ডেইজি মারাক, ইতিহাস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আনন্দ বিকাশ চাকমা, প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ সাইদুল ইসলাম এবং প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারি অধ্যাপক ড. কাঞ্চন চাকমা  ও আদিবাসী ছাত্রছাত্রীবৃন্দ প্রমুখ।

ডেইলি সিএইচটি/জিকো চাকমা

আপনার মন্তব্য

এ বিভাগের আরো খবর



আলোচিত