শিরোনাম

  বিএনপিকে আবারো সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যায়িত করেছে কানাডার আদালত   ৮০ বছর বয়সে প্রথম ভোট দিলেন   সীতাকুণ্ডে দুই আদিবাসী কিশোরীর খুনিদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি   গবেষণার কাজে ব্যবহার উদ্দেশ্যে মরণোত্তর দেহদান করলেন তসলিমা নাসরিন   প্রাথমিকে এক লাখ ৬৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ   আর্জেন্টিনার চূড়ান্ত দল ঘোষণা   মাদকবিরোধী অভিযানে বন্দুকযুদ্ধে নিহত আরো ১১   খাগড়াছড়িতে গুলি করে ১ জনকে হত্যা, দু পক্ষের মধ্যে গুলি বিনিময়   দুই আদিবাসী ত্রিপুরা কিশোরী হত্যাকান্ডের ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান চাকমা রাণী   আদিবাসীদের ঐক্যবদ্ধ প্রতিবাদের মুখে আবারো ব্যর্থ হয়েছে সেটেলারদের দখলবাজি প্রচেষ্টা   ত্রিপুরা রাজ্যে ভয়াবহ বন্যা, পানির নিচে ৩ হাজার বাড়ি   বান্দরবানে অবৈধভাবে পাহাড় কাটার সময় মাটি চাপায় ৫ জন নিহত   অপরাধীদেরকে আইনের আওতায় এনে বিচার করা হোক : সুলতানা কামাল   কক্ষপথে পৌঁছাল বাংলাদেশ   আজ ২০ মে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের ২৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী   প্রিন্স হ্যারির রাজকীয় বিয়ের ছবি   সীতাকুন্ডে দুই আদিবাসী কন্যা শিশু ধর্ষণ ও হত্যার বিচার এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন   দুই আদিবাসী কিশোরী হত্যাকারী আবুল হোসেনের ফাঁসির দাবি   প্রেমের প্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে আবুল হোসেন দুই আদিবাসী কিশোরীকে হত্যা করেছে   সীতাকুণ্ডে ২ আদিবাসীকে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যায় মামলা
প্রচ্ছদ / মুক্তিযুদ্ধ / মুক্তিযুদ্ধ করেও ভূমিহীন যোগ্যশ্বর

মুক্তিযুদ্ধ করেও ভূমিহীন যোগ্যশ্বর

প্রকাশিত: ২০১৭-০৪-২৩ ১৪:১৬:৫৬

নিউজ ডেস্ক

নিজের নামে এক টুকরো ভূমি নেই মুক্তিযোদ্ধা যোগ্যশ্বর জলদাসের। পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গায় ৩০ বছর ধরে ভাঙাচোরা একটি ঘরে অনেক কষ্টে পরিবার-পরিজন নিয়ে বসবাস করছেন তিনি।

সরকার দরিদ্র মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ঘর তৈরি করে দিলেও নিজের নামে ভূমি না থাকায় সরকারি সেই ঘরও কপালে জুটছে না উপজেলার ওচমানপুর ইউনিয়নের এই মুক্তিযোদ্ধার।

যোগ্যশ্বর জলদাস বলেন, জীবন বাজি রেখে ৫ মাস যুদ্ধ করেছি। যুদ্ধ শেষে দেশ স্বাধীন হওয়ার পর শুনি মুক্তিবার্তায় আমার নাম নেই। অনেকের কাছে ধরনা দিয়েও ৩৮ বছর মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি পাইনি। আমার কাছে মুক্তিযুদ্ধকালীন বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর অধিনায়ক জেনারেল আতাউল গনি ওসমানী স্বাক্ষরিত স্বাধীনতা সংগ্রামের সনদপত্র থাকা সত্ত্বেও মুক্তিযুদ্ধ করেছি কি-না প্রমাণের জন্য চারবার ইন্টারভিউ দিতে হয়েছে।

সর্বশেষ ২০০৯ সালের শেষ দিকে মুক্তিযুদ্ধকালীন ১ নম্বর সেক্টরের সাব সেক্টর কমান্ডার বর্তমান গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনকে সব কিছু বলার পর তিনি আমাকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি দিতে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে ডিও লেটার দেন। ২০১০ সালের ৭ মার্চ মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় আমাকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সাময়িক সনদপত্র দেয়।

বাঁশখালী মৌজায় আমাদের যেটুকু সম্পত্তি ছিল তাও নদীতে বিলীন হয়ে যায়। পরে ভাইবোন নিয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৬ শতক জায়গায় দখল স্বত্বে কিনে টিনশেডের একটি ঘর করি। সেখানেই চার ছেলে, চার মেয়ে নিয়ে জীবন পার করে দিলাম। এখন বিভিন্ন সমস্যার কারনে সেই জায়গায়ও বসবাস করতে পারছি না।

উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, সরকার তিন ক্যাটাগরিতে ঘর তৈরি করে দিচ্ছে। ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধা যোগ্যশ্বরের বিষয়ে তিনি কোনো তালিকা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, স্থানীয় প্রশাসন থেকে পাননি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত