শিরোনাম

  নৌকার জয় সুনিশ্চিত : প্রধানমন্ত্রী   আজ ইউপিডিএফ’র ২০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী   এবার থাইল্যান্ডে বৈধ হলো গাঁজা   ইউপিডিএফ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকলকে সংগ্রামী শুভেচ্ছা জানালেন প্রসিত বিকাশ খীসা   চীনা শিশুরা আর স্কুল পালাতে পারবে না!   আবার ক্ষমতায় গেলে ভুল সংশোধন করা হবে : কাদের   প্রধানমন্ত্রী থেকে মাতৃভাষার বই পেয়েছে ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীর শিশুরা   শুভ বড়দিন আজ   রোহিঙ্গাদের জন্য শীতবস্ত্র পাঠাল ভারত   ইন্দোনেশিয়ায় সুনামির আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪০০ অধিক ছাড়িয়েছে   টাকার মালা উপহার পেলেন ফখরুল!   মধ্যরাত থেকে নির্বাচনী মাঠে সেনাবাহিনী   ভোটের দিন ২৪ ঘণ্টা সব যান চলাচল বন্ধ   সেনা মোতায়েনে ভোটারদের মধ্যে আস্থা ফিরে আসবে: সিইসি   পানছড়িতে ইউপিডিএফের নির্বাচনী অফিসে এলোপাতাড়ি ব্রাশ ফায়ারে ২ জন নিহত!   জেএসসি ও পিইসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ   আগামী ৩০ তারিখ আমরা নৌকার বিজয় নিয়ে ঘরে ফিরবো: দীপংকর তালুকদার   ইন্দোনেশিয়ায় সুনামির আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২২২ জন   যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে তাদের ভোট দেবেন নাঃ প্রধানমন্ত্রী   ২৮ ডিসেম্বর থেকে ১ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত ৪ দিন মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা
প্রচ্ছদ / ফিচার / কুঁড়ে ঘরের ছেলেদের বিয়ে করবেন জাপানের দুই রাজকুমারী

কুঁড়ে ঘরের ছেলেদের বিয়ে করবেন জাপানের দুই রাজকুমারী

প্রকাশিত: ২০১৮-০৬-২৭ ১১:৫৪:৪০

বাম থেকে জাপানি রাজকুমারী- মাকো এবং আয়াকো

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

রাজপথ নয়, জনপথই পছন্দ জাপানের রাজকুমারীর! প্রাসাদ নয়, রাজকুমারীর পছন্দ হবু বরের ‘ছোট্ট কুঁড়ে’!

শৈশব থেকে প্রাসাদের বৈভব তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করার পর এ বার সম্ভবত বৈরাগ্য এসেছে তাঁর! তাই রাজপ্রাসাদের বিলাস, বৈভবের মোহ ছেড়েছুড়ে তিনি মেতে গিয়েছেন আমজনতার স্রোতে।

বিয়ে করতে চলেছেন এক সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলেকে। পাত্র কেই কোমুরো তাঁর বহু দিনের প্রেমিক। কলেজে পড়তে পড়তেই তাঁর সঙ্গে আলাপ জাপানের রাজকুমারী মাকোর।

রাজকুমারী মাকোর সঙ্গে কেই কোমুরোর দেখা হয়েছিল ২০১২ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময়।

তাদের প্রেম কাহিনী নিয়ে হৈ চৈ কম হয়নি। রাজকুমারী মাকো হচ্ছেন জাপানের সম্রাট আকিহিতোর নাতনি। অন্যদিকে কেই কোমুরো একেবারে সাধারণ পরিবারের সন্তান। তাদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল আসছে নভেম্বরে।

কিন্তু এই বিয়ে এখন ২০২০ সাল পর্যন্ত স্থগিত রাখা হচ্ছে।

রাজপরিবারের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বিয়ের প্রস্তুতির জন্য অনেক সময় লাগবে। সেজন্যেই পিছিয়ে দেয়া হয়েছে অনুষ্ঠানটি।

রাজকুমারী মাকোর বয়স এখন ২৬। তার প্রেমিক কেই কোমুরো কাজ করেন একটি ল' ফার্মে।

এই দম্পতির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, যথেষ্ট প্রস্তুতির অভাবেই তারা বিয়ের অনুষ্ঠান পিছিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

সামনের বছর জাপানের রাজা আকিহিতো সিংহাসন ছেড়ে দিচ্ছেন। তিনি আগেই এই ঘোষণা দিয়েছিলেন। গত দুশো বছরের ইতিহাসে এই প্রথম কোন সম্রাট সিংহাসন ছাড়ছেন।

বলা হচ্ছে এ নিয়ে রাজপরিবারকে সাংঘাতিক ব্যস্ত থাকতে হবে। সেটা হয়তো বিয়ের অনুষ্ঠান পিছিয়ে দেয়ার একটা কারণ।

রাজকুমারী মাকো এক বিবৃতিতে বলেন, "যারা আমাদের বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজনে সাহায্য করছিলেন তাদের সবার জন্য বড় একটা সমস্যা তৈরি করায় আমি আসলেই দুঃখিত"

রাজকুমারী মাকো যখন তার প্রেমিক কেই কোমুরোকে বিয়ে করবেন, তখন তাঁর রাজশিরোপা হারাবেন। অর্থাৎ তিনি আর রাজকুমারীর মর্যাদা পাবেন না।

জাপানের রাজপরিবারের তরফ থেকে বলা হচ্ছে সম্রাট আকিহিতো অবসরে যাওয়ার পর তাঁর ছেলে যুবরাজ নারুহিতো সিংহাসনে আরোহনের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হলে তাদের বিয়ে হবে।

জাপানের একটি ম্যাগাজিনে এই মর্মে খবর বেরিয়েছিল রাজকুমারী মাকো' প্রেমিক মিস্টার কোমুরোর মা কিছু আর্থিক ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েছেন। সেটাই বিয়ে পেছানোর কারণ।

এদিকে, জাপানের রাজকুমারী আয়াকো একজন জাহাজের কর্মচারীকে বিয়ে করতে রাজী হয়েছেন। এমনকি সে রাজপরিবার ছেড়ে চলে যাবেন।

আয়াকো হলেন জাপানের সম্রাট আকিহিতোর ভাতিজি এবং প্রয়াত প্রিন্স তাকামোদের তৃতীয় কন্যা ।

আগামী ১২ আগস্ট তাদের দুইজনের মধ্যে আংটি বদল হবে। ২৯ অক্টোবর টোকিওর একটি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বিয়ে হবে। এমনতাই তথ্য জানালেন পরিবার থেকে।

মোরিয়ার সঙ্গে আয়াকোর পরিচয় হয় মা প্রিন্সেস তাকামোদের মাধ্যমে। একটি সমাজ কল্যাণ সংস্থায় কাজ করতে গিয়ে মোরিয়ার মা-বাবার সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হয় প্রিন্সেস তাকামোদের। এরপর তাদের পরিবারের সঙ্গে রাজপরিবারের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

অন্যদিকে আরেক রাজকুমারী মাকোর প্রেমিক কেই কোমুরো একেবারে সাধারণ পরিবারের সন্তান। তাদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল আসছে নভেম্বরে।

কিন্তু এই বিয়ে এখন ২০২০ সাল পর্যন্ত স্থগিত রাখা হচ্ছে।

তথ্যসূত্রঃ সিনএনএন,ডেইলি মেইল।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত