আজ শুক্রবার, | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং

শিরোনাম

  সন্তুু লারমার কুশপুত্তলিকা দাহ করার প্রতিবাদে ও স্বেচ্ছায় বাঘাইছড়িতে আ. লীগের অর্ধশত পাহাড়ী নেতা-কর্মীর পদত্যাগ   পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তিতে যেসব বিষয় অবাস্তবায়িত রয়ে গেছে   অনাদী রঞ্জন চাকমা হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি   রাংগামাটি বাঘাইছড়ি পৌরসভা ও ইউনিয়নে স্বেচ্ছায় আরো ২১ জন পাহাড়ি আ. লীগ নেতার পদত্যাগ   এবার আয়ারল্যান্ড থেকে সু চির \'ফ্রিডম অব ডাবলিন সিটি’ পুরস্কার প্রত্যাহার   শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস আজ   রোহিঙ্গাদের জন্য ১৪ দশমিক ৫ মিলিয়ন ডলার অনুদান দিবে যুক্তরাষ্ট্র   ২০ হাজার ভিক্ষু নিয়ে মান্দালয়ে অনুষ্ঠিত হবে থাইল্যান্ড এবং মিয়ানমারের মহাদান অনুষ্ঠান   মিয়ানমারে রয়টার্সের দুই সাংবাদিক আটক, দোষী সাব্যস্ত হলে ১৪ বছর কারাদন্ড হতে পারে   ত্রিপুরা রাজ্যে মায়েদের সন্তান পালনের জন্য ছুটি দুই বছর   প্যারিসে শীর্ষক গণশুনানি ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ   আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ কনফেডারেশন মহাসচিব হিসেবে নির্বাচিত হলেন ত্রিপুরা বৌদ্ধ ভিক্ষু   জালালাবাদ এসোসিয়েশন অফ টরোন্টোর ট্রাস্টী এবং উপদেষ্টামণ্ডলীর পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত   ত্রাণের উপর ঘুমাচ্ছে রোহিঙ্গারা , শীতে কেমন আসে লংগদুর পাহাড়িরা?   পার্বত্য এলাকায় আইন শৃঙ্খলা রক্ষার প্রাথমিক দায়িত্ব আঞ্চলিক ও জেলা পরিষদের ওপর ন্যস্ত করার সুপারিশ   হামলার অভিযোগে আটককৃত ব্যক্তিরা রাঙ্গাপানি ও ভেদভেদী এলাকার অটোরিক্সা চালক, ছাত্র ও দিনমজুর   তিব্বতীয় মুসলমানরা দালাই লামাকে এখনো নেতা হিসেবে মনে করে   রাঙ্গামাটিতে ৬৯ গ্রামবাসী ও জেএসএস সদস্যের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা, নিরীহ ১৯ জনকে গ্রেফতার, ১২ জনকে হয়রানির অভিযোগ   নিউইয়র্কে হামলাকারী সন্দেহভাজন ব্যক্তি চট্টগ্রাম থেকে, পরিবার আতঙ্কিত   বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চ ভাষণের বিশ্ব স্বীকৃতিতে কানাডার অটোয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের আনন্দ শোভাযাত্রা

ক্ষতিপূরণ দিয়ে বাঁচিয়ে না রেখে গুলি করে মেরে ফেলান

প্রকাশিত: ২০১৭-০৬-০৫ ২৩:০৪:১২

   আপডেট: ২০১৭-১১-২২ ১২:৩৮:৪৭

ফাইল ছবি(কার্টেশী)

রাংগামাটি

রাঙ্গামাটি লংগদুতে সাম্প্রদায়িক হামলার পর ভুক্তভোগীরা অনেক ভেঙে পড়েছেন। তাদের এখনো আতঙ্ক কাটেনি বলে জানিয়েছেন। তিন দিনেও বসত ভিটায় ফেরেননি চারটি গ্রামের ঘরছাড়া পাহাড়িরা। এ অবস্থায় সোমবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার ও পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জ ডিআইজি। এসময় তারা ক্ষতিগ্রস্তদের নিরাপত্তাসহ অগ্নিসংযোগের সঙ্গে জড়িতদের শাস্তির আশ্বাস দেন।

এছাড়া জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রাণ সহায়তা দিলেও অনেকে তা ফেরত দিয়েছে। অনে্কে সবকিছু হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন। সরিজমিনে ঘটনাস্থলে তদন্ত করতে গেলে ভুক্তভোগী অনেক পাহাড়ি পরিতাপের সহিত বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া সাংবাদিকদের কাছে ব্যক্ত করেন।

তাদের বার বার অভিযোগ রয়েছে এটি পরিকল্পিত সাম্প্রদায়িক হামলা। যা সেখানে পেট্রোল ও কেরোসিন দিয়ে তাদের ঘর-বাড়ি দোকান পুড়িয়ে দিয়েছে উগ্রজাতীয় সেটেলাররা। তারা জানায়, তাদের ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগের সহিত ব্যপক লুটপাট করা হয়। যা একেক জনের সর্বনিম্ন ৪-৫ লাখ টাকার সম্পত্তি নষ্ট হয়েছে। প্রশাসন বলছেন অসহায়দের ট্রান বিতরণ করা হবে কিন্তু ভুক্তভোগীরা অনেকে নিরূপায় হয়ে বলছেন ক্ষতিপূরণ না দিয়ে_বাঁচিয়ে না রেখে গুলি করে মেরে ফেলান। কারণ তাদের প্রচুর পরিমাণে ক্ষতিসাধন করা হয়েছে। যা এখন পূর্বের অবস্থা ফিরিয়ে পেতে ২০-২৫ বছর তাদের লাগতে পারে। আগুনে পুড়ে গিয়েছে অনেক মূল্যবান জিনিসপত্র,হাড়ি-পাতিল সহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় দলিল।

সোমবার লংগদু সদর উপজেলার তিনটিলা ও মানিকজোড় ছড়া গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, অগ্নিসংযোগের ফলে পাহাড়িদের সহায় সম্বল সবই পুড়ে ছারখার হয়ে গেছে। ঘটনার তিন দিন পরও পুড়ে যাওয়া অনেক বাড়ির ধানের গোলা থেকে আগুনের ধোঁয়া বের হচ্ছে। ঘটনার পর দূর্গম অরণ্যের নিরাপদ স্থানে পালিয়ে যাওয়া কয়েকজন পাহাড়িকে দেখা যায় নিজেদের পুড়ে যাওয়ার ঘরবাড়ি দেখতে এসেছেন।

তিনটিলা পাড়া সহিংসতার শিকার প্রবোধ চাকমা, স্বপ্না চাকমা, তাপস চাকমাসহ অনেকে জানান, তারা পুড়ে যাওয়া তাদের ঘরবাড়ি দেখতে এসেছেন। পুড়ে যাওয়া বসতভিটায় থাকাটা নিরাপদ মনে করছেন না। এ জন্য বিকেলে আবারও আশ্রয়স্থলে ফিরে যাবেন।

সহিংস ঘটনার ঘটনার দুদিন পর রোববার তিনটিলা বৌদ্ধ মন্দিরে থাকা পাহাড়িদের জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হয়। তবে তারা ত্রান সহায়তা ফেরত দিয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্থ প্রেমরঞ্জন চাকমাসহ অনেকেই জানান, তাদের পূর্ণ নিরাপত্তা, উপযুক্ত ক্ষতিপূরণসহ ঘরবাড়ি নির্মাণ করে দিতে হবে। তা না হলে প্রয়োজনে তারা খোলা আকাশের নিচে থাকবেন।

এদিকে, লংগদুতে অগ্নিসংযোগের ঘটনার প্রতিবাদে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) ডাকে সোমবার সকাল ৬টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত অবরোধ শান্তিপূর্ণভাবে পালিত হয়েছে।

এছাড়া আজ সোমবার রাঙ্গামাটির লংগদুর পাহাড়ি পল্লিতে আগুন দেয়ার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়েছে রাঙ্গামাটি সংসদ সদস্য শ্রীঃ ঊষাতন তালুকদার। সংসদীয় একটি প্রতিনিধি দলের উপদ্রুত এলাকায় পাঠানোর দাবিও জানান তিনি।

সোমবার জাতীয় সংসদে দেয়া বক্তব্য এই দাবি জানান ঊষাতন। তিনি এই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের খাদ্য সরবারহ ও পূর্ণবাসন এবং ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জন্য আহ্বান জানান।

ঊষাতন বলেন, ‘এই সমস্ত ঘটনা বার বার হওয়ার মূল কারণ পার্বত্য চুক্তি পুরোপুরি বাস্তবায়ন না হওয়া। তাই চুক্তি অচিরেই বাস্তবায়ন করে এলাকার শান্তি আনার আহ্বান জানাই।’রাঙ্গামাটির সংসদ সদস্য বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী চুক্তির বিষয়ে আন্তরিক তাই চুক্তি হয়েছে এখন এ চুক্তি দ্রুত বাস্তবায়ন করার আহ্বান জানাচ্ছি। ’



সংসদে ঢাকা ১৭ আসনের সংসদ সদস্য এস এম আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘আমাদের সরকারের সঙ্গে জনসংহতি সমিতির যে চুক্তি সম্পাদিত হয়েছে এ চুক্তি নিয়ে এবং সর্বশেষ পার্বত্য ভুমি আইন নিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামে অসন্তোষ বিরাজ করছে। বেশ কিছু সংগঠন আন্দোলন করছে। এটি নিরশন হওয়া দরকার। এর জন্য সংসধীয় তদন্ত হওয়া দরকার। সংসদকে একটা সিদ্ধান্ত নিতে হবে কীভাবে এর সমাধান করা যায়।

প্রসঙ্গত,পাহাড়িদের অভিযোগ রয়েছে গত শুক্রবার রাঙ্গামাটি জেলার লংগদু উপজেলা সদরের তিনটিলা ও পার্শ্ববর্তী মানিকজুরছড়ায় সেনা-পুলিশের ছত্রছায়ায় সেটেলার বাঙালি কর্তৃক জুম্মদের ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটসহ সংঘবদ্ধ সাম্প্রদায়িক হামলা চালানো হয়েছে। এ হামলায় লংগদু সদরের তিনটিলা এলাকায় জুম্মদের দুই শতাধিক ঘরাবাড়ি ও দোকানপাট এবং মানিকজুরছড়ায় কমপক্ষে ৪০টির ঘরবাড়িসহ জুম্মদের প্রায় ২৫০টি ঘরবাড়ি সম্পূর্ণভাবে ভস্মীভূত হয়েছে।

জানা যায় যে, খাগড়াছড়িতে নুরুল ইসলাম নয়ন নামে একজন সেটেলার বাঙালি মোটর সাইকেল চালকের লাশ উদ্ধারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে সেদিন আনুমানিক সকাল ৯টার দিকে সেনাবাহিনী ও পুলিশের ছত্রছায়ায় লংগদু উপজেলায় বাত্যা পাড়া থেকে সেটেলার বাঙালিদের এক জঙ্গী সাম্প্রদায়িক মিছিল বের করা হয়।আগুনে পুড়ে গুণমালা চাকমা (৭৫) এক আদিবাসী নারী মারা গেছেন।

আপনার মন্তব্য


আলোচিত