শিরোনাম

  ভুটানকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরা   খাগড়াছড়িতে সেটেলার কর্তৃক পাহাড়ী নারীকে ধর্ষণ চেষ্ঠা   গুলো-গুলি || আলোময় চাকমা   বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা   মহালছড়িতে আবার ৩ গ্রামবাসীকে অপহরণ করেছে সন্ত্রাসীরা   আজ খালেদা জিয়ার জন্মদিন!   বাঙালির শোকের দিন আজ   বঙ্গবন্ধুর শোক দিবসে ২১০টি গরু জবাই দিয়ে কাঙালি ভোজ আয়োজন !   পিসিপি ২৬ তম কাউন্সিল ও ছাত্র সম্মেলন সম্পন্ন , নিপন ত্রিপুরাকে সভাপতি ও অমর শান্তি চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক   পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়ন : অর্থনৈতিক না রাজনৈতিক সমস্যা ?   খাগড়াছড়িতে ৪ গ্রামবাসীকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে   শান্তি চুক্তির পর পাহাড়ে যে উন্নয়ন হয়েছে তা টেলিটক থেকে মেসেজ করে আমরা পৌঁছে দেব : তারানা হালিম   এবার বিশ্বের মধ্যে খারাপ শহরের তালিকায় ২য় স্থানের নাম লিখেছে ঢাকা , বাংলাদেশ   জিয়াউর রহমানই পাহাড়ে সমতল থেকে মানুষ নিয়ে অশান্তির বীজ বপন করেছিল   সরকারি চাকরিজীবীরা বেতন-বোনাস পাচ্ছেন বৃহস্পতিবার   নেপালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে মারিয়া মান্দার দল বাংলাদেশ   দৈনিক সমকালের সম্পাদক গোলাম সারওয়ার আর নেই   শহিদুলের মুক্তির দাবি জানিয়েছেন নোবেলজয়ী স্টিগলিজসহ ১৩ বরেণ্য ব্যক্তিত্ব   খাগড়াছড়িতে ৪ গ্রামবাসীকে অপহরণ করেছে সন্ত্রাসীরা   রিমান্ড শেষে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন অভিনেত্রী নওশাবা
প্রচ্ছদ / বিনোদন / সড়ক দূর্ঘটনায় নিজের স্ত্রীকে হারিয়ে আজও রাস্তায় আন্দোলন করছেন নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন

সড়ক দূর্ঘটনায় নিজের স্ত্রীকে হারিয়ে আজও রাস্তায় আন্দোলন করছেন নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন

প্রকাশিত: ২০১৮-০৮-০৭ ১৫:৩১:৪৫

সালমান আহসান >>

সিনেমার পর্দায় দুর্দান্ত অভিনয়ে কোটি মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন ইলিয়াস কাঞ্চন। সবার প্রিয় এই মানুষটি গত ২৫ বছর ধরে একটি কষ্ট বুকে চেপে জীবনযাপন করছেন। স্ত্রীকে হারানোর কষ্ট। ১৯৯৩ সালের ২২ অক্টোবর এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় স্ত্রী জাহানারা কাঞ্চনকে হারিয়েছেন।

জীবনের সবচেয়ে প্রিয় মানুষটিকে হারানোর ব্যথা আজও কাঁদায় গুণী এই চলচ্চিত্র অভিনেতাকে।

স্ত্রীকে হারানোর পর সিনেমার পর্দায় আর তেমন দেখা যায়নি এই অভিনেতাকে। চলচ্চিত্র অভিনয়ে অনিয়মিত হলেও ২৫ বছর ধরে মানুষকে সড়ক দুর্ঘটনা বিষয়ে সচেতন করার লড়াই করছেন। ইলিয়াস কাঞ্চনের স্বপ্ন, আর কোনো মানুষ সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারাবে না।

এই স্বপ্ন থেকেই প্রতিষ্ঠা করেন ‘নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)’ নামের একটি সংগঠন। প্রতি বছর স্ত্রীর প্রয়াণ দিনটিকে ‘নিরাপদ সড়ক দিবস’ হিসেবে পালন করে আসছে ইলিয়াস কাঞ্চন ও তার সংগঠন ‘নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)’।

এবারও পরিবহন খাতে শৃঙ্খলা ফেরাতে ৯ দফা দাবি আদায়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) আন্দোলনের চেয়ারম্যান ও চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।

গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় কলেজপড়ুয়া দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়। পরের দিন থেকে রাজধানীর সড়ক অবরোধ করে বেপোরোয়া বাস চালকের ফাঁসি, রাস্তায় ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল এবং লাইসেন্স ছাড়া চালকদের গাড়ি চালনা বন্ধসহ ৯ দফা দাবি আদায়ে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা।

আমি তোমাদের জীবন নিয়ে শঙ্কিত। মানুষ কতটা অমানবিক হতে পারে, তা জানা ছিলোনা। যে সন্তানরা আজ নিরাপদ সড়কের দাবি নিয়ে রাস্তায় নেমেছে সেই কোমলমতি শিশুদের নিয়ে রাজনীতি শুরু হয়ে গেছে! ভাবতেও ঘৃণা হয়। চারদিকে নানা গুজব ছড়ানো হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মিশে যাচ্ছে সুযোগসন্ধানীরা। আমি তোমাদের জীবন নিয়ে শঙ্কিত, আমি চিন্তিত চিন্তিত…….।’

গতকাল সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য প্রদানকালে কথাগুলো বলতে বলতে অঝরে ডুকরে কেঁদে উঠলেন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের চেয়ারম্যান চিত্র নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। কাঁদলেন কাঁদালেন উপস্থিত সবাইকে। তাঁর কান্নায় আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত সাংবাদিক ও নিসচার অন্যান্ন নেতৃবৃন্দও।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, অনুমোদিত আইনের নামই আপত্তিকর। তারা 'সড়ক পরিবহন ও সড়ক নিরাপত্তা' আইন দাবি করেছিলেন। কিন্তু শুধু 'সড়ক পরিবহন আইন' নামে এর অনুমোদন দেওয়া হলো।

তিনি বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানির ঘটনায় সর্বনিম্ন দশ বছরের কারাদণ্ড দাবি করা হয়েছিল। উচ্চ আদালতের একটি নির্দেশনাও ছিল কমপক্ষে সাত বছর বা তার বেশি সাজার। তাদের দাবি ও আদালতের নির্দেশনা এড়িয়ে সর্বোচ্চ পাঁচ বছর কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে।

অনুমোদিত আইনে দুর্ঘটনার জন্য 'দায়ী ব্যক্তি'র বদলে চালক শব্দ উল্লেখ করা হয়েছে জানিয়ে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, দুর্ঘটনার জন্য মালিক, শ্রমিক, পথচারী যে কেউ দায়ী হতে পারে।

চালক ও হেলপারদের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে তিনি বলেন, অনুমোদিত আইনে চালকদের যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণি ও হেলপারদের পঞ্চম শ্রেণি পাস করার কথা বলা হয়েছে। যারা হেলপার হিসেবে কাজ করে তাদের লক্ষ্য থাকে চালক হওয়া। তাহলে তারা পঞ্চম শ্রেণি পাস করে কীভাবে চালক হবে।

আইনে ক্ষতিপূরণের বিষয়টি উহ্য রাখা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, একটি কমিটি করা হবে যেখানে চালক, মালিক ও শ্রমিক প্রতিনিধি থাকবে। কিন্তু এই কমিটিতে নিরাপদ সড়ক নিয়ে যারা কাজ করেন তাদেরও রাখতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে এক পর্যায়ে আবেগাপ্লুত হয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, এখন আমি শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক আন্দোলন নিয়ে চিন্তিত। শুরু হয়েছে নোংরা রাজনীতি। চারদিকে নানা গুজব ছড়ানো হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মিশে আছে সুযোগসন্ধানীরাও। ইতিমধ্যে যা শুরু হয়েছে, যেই করুক না কেন, তা অত্যন্ত জঘন্য ও ঘৃণিত। এটা মেনে নিতে পারছি না।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত