শিরোনাম

  ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর জন্য মাতৃভাষায় পুস্তক প্রকাশনার বিধান রেখে খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা   সরকারী চাকরিতে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য কোটা না হলেও সমস্যা হবে না   রুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু   দুই আদিবাসী কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্তদের সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি   দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি ও ভারী বর্ষণ হতে পারে   আদিবাসী মানবাধিকার সুরক্ষাকর্মীদের সম্মেলন ২০১৮ উদযাপন   ব্লগার বাচ্চু হত্যার সঙ্গে ‘জড়িত’ ২ জঙ্গি নিহত   জুমের বাম্পার ফলনে রাঙ্গামাটির চাষিদের মুখে হাসি   সরকারি চাকরিতে আদিবাসী কোটা বহাল দাবি জানাল আদিবাসীরা   আয়ারল্যান্ড প্রবাসী বাংলাদেশের এক মন্ত্রী দ্বারা হেনস্ত হওয়াতে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নিন্দা   শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পেয়েছে   মিয়ানমারে রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত   শহীদ আলফ্রেড সরেন হত্যার ১৮ বছর: হত্যাকারীদের দ্রুত বিচারের দাবি জাতীয় আদিবাসী পরিষদের   ভারতের কাছে ১-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা   সরকারী চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা ছাড়া সব কোটা বাতিল হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী   জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান মারা গেছেন   ঈদের ছুটি কাটানো হলোনা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার নিরীহ ধীরাজ চাকমার   খাগড়াছড়িতে পৃথক ঘটনার জন্য জেএসএস(সংস্কারবাদী) ও নব্য মুখোশ বাহিনীকে দায়ী করেছে : ইউপিডিএফ   নানিয়ারচর থেকে খাগড়াছড়ি   খাগড়াছড়িতে ৬ জনকে গুলি করে হত্যা !
প্রচ্ছদ / চট্টগ্রাম / খাগড়াছড়িতে আবার সেটেলার কর্তৃক পাহাড়ি নারীকে ধর্ষণ

খাগড়াছড়িতে আবার সেটেলার কর্তৃক পাহাড়ি নারীকে ধর্ষণ

প্রকাশিত: ২০১৮-০৮-০৬ ১৫:০২:১১

   আপডেট: ২০১৮-০৮-০৬ ১৫:০৯:৫৭

খাগড়াছড়ি >>

খাগড়াছড়িতে এক পাহাড়ি নারী(১৯) ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার ৬ আগস্ট মাটিরাঙ্গা উপজেলাধীন গোমতি ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের উদয় কুমার কার্বারী পাড়ায় নিজ বাড়িতে সকালে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম ও এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, শিকার নারীর স্বামী পেশায় একজন ভাড়ায় মোটর সাইকেল চালক। আজ সকালে তিনি যাত্রী নিয়ে মাটিরাঙ্গায় যান। বাড়িতে তার স্ত্রী একাই ছিলেন।

জানা গেছে, একই ওয়ার্ডের বান্দরছড়া গ্রামের মোঃ মনির হোসেনের ছেলে মোঃ সালাউদ্দিন(১৮) তার এক সহযোগীকে সাথে নিয়ে উদয় কুমার কার্বারী পাড়ার পার্শ্ববর্তী নিজেদের কলা বাগান থেকে কলা নিতে আসে।

এ সময় তারা ওই নারীর বাড়িতে গিয়ে তাকে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।পরে ভিকটিম ওই নারী ঘটনাটি তার স্বামীকে জানালে এলাকায় ঘটনাটি জানা-জানি হয়েছে বলে জানা গেছে।

বর্তমানে স্বামী-স্ত্রী মিলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মাটিরাঙ্গা থানায় মামলা দেওয়ার জন্য যাচ্ছেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে, রাঙামাটির লংগদু উপজেলার দুর্গম ভাসান্যাদম ইউনিয়নের পূর্ব চাইল্যাতলী গ্রামে ১৬ বছরের প্রতিবন্ধি এক পাহাড়ি কিশোরীকে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন।

লংগদু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রঞ্জন কুমার সামন্ত ঘটনার সত্যটা নিশ্চিত করেছেন।

এ ঘটনায় পুলিশ ধর্ষনের অভিযোগে মোঃ শওকত (১৯) নামের এক যুবকে আটক করে আদালতে পাঠিয়েছে বলে জানা গেছে। ৫ আগস্ট রোববার তাকে রাঙামাটি জেলা আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। আটক শওকত চাইল্যাতলী গ্রামের মোঃ ইদ্রিসের ছেলে। শিকার কিশোরীর বাবা লংগদু থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য কিশোরীকে রাঙামাটি কতোয়ালী থানায় ভিক্টিম সাপোর্ট সেন্টারে পাঠানো হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছেন।

পুলিশের ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, গেল শনিবার দুপুরের দিকে লংগদু উপজেলার দুর্গম ভাসান্যাদম ইউনিয়নের পূর্ব চাইল্যাতলী গ্রামে ১৬ বছরের প্রতিবন্ধি পাহাড়ী কিশোরীকে বাড়ীতে একা পেয়ে ধর্ষন করে শওকত।

ঘটনার সময় বাড়ীর পাশ্ববর্তী এক নারী ঘটনার খবর জানতে পেরে এলাকার লোকাজনকে খবর দিলে শওকতকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। পুলিশকে খবর দেয়ার পর ঘটনাস্থলে গেলে অভিযুক্ত যুবককে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

এর আগে গত ২৮ জুলাই দীঘিনালা উপজেলার ৯ মাইল এলাকায় পুনাতি ত্রিপুরা নামে এক কিশোরীকে ধর্ষণের পর নির্মমভাবে করা হয়।

ওইদিন সকালে পরিবারের লোকজন সবাই জুমের কাজে যায়। পুনাতি ত্রিপুরাও প্রতিদিনের মতো বিদ্যালয়ে চলে যায়। জুমের কাজ শেষে বিকালে পরিবারের লোকজন বাড়িতে এসে মেয়েটিকে না পেয়ে খোঁজাখুজি করতে থাকে। অনেক খোঁজাখুজির পর রাত সাড়ে ১১টার দিকে বাড়ির নীচের ছড়ার পাশে তার ক্ষত-বিক্ষত লাশ পাওয়া যায়।

এরপর ৩০ জুলাই সোমবার দীঘিনালা উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ত্রিপুরা কিশোরী হত্যা মামলার তিন জন আসামীকে আটক করা হয়।

অাটককৃতরা হলো, দীঘিনালার বড় মেরুং এলাকার মৃত মোবারক হোসেনের ছেলে শাহ অালম (৩৩), একই এলাকার জালাল উদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম (৩২) ও মধ্য বোয়ালখালি এলাকার ফজর অালীর ছেলে মনির হোসেন (৩৮)।

২ আগস্ট বৃহস্পতিবার খাগড়াছড়ি জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোরশেদুল আলম এর আদালতে আবেদন জানালে শুনানীর পর আদালত প্রত্যেককে সাত দিন এর পরিবর্তে প্রত্যেক অভিযুক্তকে ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করে।

এছাড়াও ৩ আগস্ট শুক্রবার রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইহাট এলাকা থেকে কৃত্তিকা ত্রিপুরা ওরফে পুনাতি (১১) নামে এক শিশুকে ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় আরেক সন্দেহভাজন মনির হোসেনকে (৩৫) আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের মা অনুমতি ত্রিপুরা ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় কয়েকজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত