শিরোনাম

  নৌকার জয় সুনিশ্চিত : প্রধানমন্ত্রী   আজ ইউপিডিএফ’র ২০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী   এবার থাইল্যান্ডে বৈধ হলো গাঁজা   ইউপিডিএফ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকলকে সংগ্রামী শুভেচ্ছা জানালেন প্রসিত বিকাশ খীসা   চীনা শিশুরা আর স্কুল পালাতে পারবে না!   আবার ক্ষমতায় গেলে ভুল সংশোধন করা হবে : কাদের   প্রধানমন্ত্রী থেকে মাতৃভাষার বই পেয়েছে ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীর শিশুরা   শুভ বড়দিন আজ   রোহিঙ্গাদের জন্য শীতবস্ত্র পাঠাল ভারত   ইন্দোনেশিয়ায় সুনামির আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪০০ অধিক ছাড়িয়েছে   টাকার মালা উপহার পেলেন ফখরুল!   মধ্যরাত থেকে নির্বাচনী মাঠে সেনাবাহিনী   ভোটের দিন ২৪ ঘণ্টা সব যান চলাচল বন্ধ   সেনা মোতায়েনে ভোটারদের মধ্যে আস্থা ফিরে আসবে: সিইসি   পানছড়িতে ইউপিডিএফের নির্বাচনী অফিসে এলোপাতাড়ি ব্রাশ ফায়ারে ২ জন নিহত!   জেএসসি ও পিইসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ   আগামী ৩০ তারিখ আমরা নৌকার বিজয় নিয়ে ঘরে ফিরবো: দীপংকর তালুকদার   ইন্দোনেশিয়ায় সুনামির আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২২২ জন   যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে তাদের ভোট দেবেন নাঃ প্রধানমন্ত্রী   ২৮ ডিসেম্বর থেকে ১ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত ৪ দিন মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা
প্রচ্ছদ / চট্টগ্রাম / পাহাড়ি অঞ্চলে ২৪ ঘণ্টা ভারী বর্ষণের বিপদ সংকেত

পাহাড়ি অঞ্চলে ২৪ ঘণ্টা ভারী বর্ষণের বিপদ সংকেত

প্রকাশিত: ২০১৮-০৬-১২ ১১:১১:২১

   আপডেট: ২০১৮-০৬-১২ ১১:১২:৩৯

অনলাইন ডেস্ক

টানা ভারী বর্ষণে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কের বিভিন্ন স্থান পানিতে তলিয়ে গেছে। এতে ওই রুটে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এদিকে চট্টগ্রাম রেল স্টেশনে দুটি ট্রেনের সিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে।

শুক্রবার বিকেলে বৃষ্টি শুরুর পর সোমবার বিকেলে রাউজানের অন্তত ১৩টি স্থানে পানিতে ডুবে গেছে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়ক।

পাহাড়ি অঞ্চলসহ আশেপাশে আগামী ২৪ ঘণ্টায়ও ভারী বর্ষণ অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন পতেঙ্গা আবওহাওয়া অফিসের সহকারী আবহাওয়াবিদ শেখ হারুনুর রশিদ।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ৮১ দশমিক ৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এর আগের বর্ষা মৌসুমে সর্বোচ্চ ২৩৯ মিলিমিটার বৃষ্টি বৃষ্টিপাতের রেকর্ড করা হয়েছিল। আগামী ২৪ ঘণ্টায়ও ভারী বর্ষণ অব্যাহত থাকতে পরে।

তিনি বলেন, চট্টগ্রাম, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। বুধবার পর্যন্ত চট্টগ্রাম ও আশপাশের এলাকায় ভারী বর্ষণ অব্যহত থাকবে। তাই পাহাড় ধসের সতর্কতা জারি থাকবে।

চট্টগ্রাম রেল স্টেশন ম্যানেজার আবুল কালাম জানান, ট্রেনে ঈদ যাত্রার তৃতীয় দিনে ভারী বৃষ্টিতে লাইনে বিভিন্ন স্থানে ত্রুটির কারণে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার অপেক্ষায় থাকা বিজয় ও চট্টলা এক্সপ্রেস ছাড়তে দেরি হচ্ছে।

এদিকে, রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলার পৃথক স্থানে ভূমিধসে ১১ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত তিনজন নিখোঁজ রয়েছেন। ১২ জুন, মঙ্গলবার উপজেলার বড়পুল, শিকলপাড়া ও হাতিমারা এলাকায় ভূমিধসের এই ঘটনা ঘটে।

তারা হলেন-বড়কূলপাড়ার একই পরিবারের তিনজন সুরেন্দ্র লাল চাকমা (৪৮), তার স্ত্রী রাজ্য দেবী চাকমা ও মেয়ে সোনালী চাকমা (০৯), হাতিমারা গ্রামের রুমেল চাকমা (১২), রিতান চাকমা (২৫) ও রীতা চাকমা (১৭),ফুলদেবী চাকমা (৩২), ইতি চাকমা (২৪) । তবে বাকী নিহতদের নাম এখনো পাওয়া যায়নি।

নানিয়ারচর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান কোয়ালিটি চাকমা জানান, বড়পুল পাড়ায় চারজন, ধর্মচরণ কার্বারিপাড়ায় চারজন নিহত হয়েছেন। আর হাতিমারায় নিখোঁজ রয়েছেন আরও অন্তত পাঁচজন। বাকী নিখোঁজেদের উদ্ধারের কাজ চলছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত