শিরোনাম

  ঢাবি শিক্ষার্থী প্রকট চাকমাসহ ১৩ শিক্ষার্থী পেলেন জগন্নাথ হল স্বর্ণপদক   চট্টগ্রামসহ অনেক জায়গায় ভারী বর্ষণ হতে পারে   ভিয়েতনামে বন্যায় ২০ জনের মৃত্যু , ১ লাখ ১০ হাজার হেক্টর জমির ফসল বিনষ্ট   দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলা   ছাত্রলীগকে প্রধানমন্ত্রী সতর্ক করেছেন: কাদের   থানকুনি পাতার জাদুকরি উপকারিতা   চট্টগ্রাম কর্ণফুলীতে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ, গ্রেফতার ৩   পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠা ও উন্নয়নে সেনাবাহিনীর ভূমিকা অপরিসীম : প্রধানমন্ত্রী   চিকিৎসা খাতে নতুন আবিষ্কার রঙিন ও থ্রি-ডি এক্স-রে   গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেঁদেছেন প্রধানমন্ত্রী   না ফেরার দেশে রাজীব মীর   নানিয়াচর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান প্রীতিময় চাকমাকে অপহরণ   ছেলেদের চেয়ে এবারও এগিয়ে মেয়েরা   চট্টগ্রাম বোর্ডের পাশের হার ৬২.৭৩ %   যারা ফেল করেছে তাদের বকাঝকা করবেন না : প্রধানমন্ত্রী   এইচএসসি তে পাসের ধস নেমেছে এবার   এইচএসসি ও সমমানে পাসের হার এবার ৬৬.৬৪   হাসপাতাল ছাড়ার পর এবার থাই কিশোররা সবাই শ্রামণ হয়ে প্রবজ্যা গ্রহণ করবে   থাইল্যান্ডের গুহায় আটকা পড়া কিশোররা হাসপাতাল ছেড়েছে   ৮ দল নিয়ে বাম গণতান্ত্রিক জোটের আত্মপ্রকাশ
প্রচ্ছদ / ক্যাম্পাস / ১৯৯৩ সালে নানিয়াচর গণহত্যায় নিহতদের স্মরণে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে শোকসভা ও মোমবাতি প্রজ্জ্বলন

১৯৯৩ সালে নানিয়াচর গণহত্যায় নিহতদের স্মরণে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে শোকসভা ও মোমবাতি প্রজ্জ্বলন

প্রকাশিত: ২০১৭-১১-১৭ ২৩:০৫:৪৯

   আপডেট: ২০১৭-১১-১৭ ২৩:০৮:২৩

পিসিপি,চট্টগ্রাম

১৭ই নভেম্বর ১৯৯৩ সালের নানিয়াচর গণহত্যায় নিহতের স্মরণে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্যোগে চবি পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ এস. আলম কটেজ দপ্তর প্রাঙ্গনে এক শোকসভা ও মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করা হয়।

পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ২নং গেইট শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক তরুন বিকাশ চাকমার সঞ্চালনায়, পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ- সভাপতি প্লেটো খীসার সভাপতিত্বে শোকসভার শুরুতে গণহত্যায় নিহতদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

এরপর নানিয়াচর গণহত্যায় নিহতদের স্মরণে শোকসভায় বক্তব্য রাখেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সদস্য ম্যাকলিন চাকমা,পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাবেক তথ্য প্রচার সম্পাদক অলি চাকমা, পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার দপ্তর সম্পাদক সুমেধ চাকমা প্রমুখ।

শোকসভায় বক্তরা বলেন,১৯৯৩ সালের এইদিনে রাঙামাটি জেলার নানিয়াচরে পূর্বপরিকল্পিতভাবে সেনাবাহিনী ও সেটলার বাঙালিরা নিরীহ জুম্মদের উপর নির্বিচার হামলা চালিয়ে ৩০ জনের অধিক জুম্মকে নির্মমভাবে হত্যা ও বহু লোককে আহত করে এবং ৩০ টির অধিক ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেয়।
পার্বত্য চট্টগ্রামের বুক থেকে জুম্মদের অস্তিত্বকে চিরতরে ধ্বংস করতে শাসকগোষ্ঠীর নীল নকশার অংশ হিসেবে এ হত্যাকান্ড চালানো হয় বলে বক্তারা মন্তব্য করেন।

বক্তারা বলেন, নানিয়াচরের গণহত্যার মত পার্বত্য চট্টগ্রামে সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় সেটলার বাঙালিরা আরও অনেক হত্যাকান্ড চালিয়েছে।কিন্তু এ গণহত্যার বিচার এখনও জুম্ম জণগন পাইনি।তাই এ ধরণের হত্যাকান্ড প্রতিহত করতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সাথে সামিল হয়ে জুম্ম জাতির অস্তিত্ব লড়াই সংগ্রামে সবাইকে এগিয়ে আসার জন্য বক্তারা আহ্বান জানান।

শোকসভা শেষে ১৭ই নভেম্বর ১৯৯৩ সালে নানিয়াচর গণহত্যায় নিহত জুম্মদের স্মরণে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করা হয়।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত